বাঘায় প্রতিবন্ধী নারিকে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা,গ্রেপ্তার ময়েন!

রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি : বাঘায় আঠাশ বছর বয়সের শারীরিক ও মানষিক প্রতিবন্ধী নারিকে ধর্ষনের অভিযোগে ময়েন উদ্দীন (৪৫) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার(২৩-১১-২০২১) দুপুরে মামলা দায়েরের পর ওই নারির শারিরিক পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছেন, উপজেলার হেলালপুর গ্রামের বাসিন্দা, প্রতিবন্ধী নারির পিতা মুনসুর রহমান। নিয়মিত মামলা রেকর্ডের আগে ময়েনকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার বাড়ি উপজেলার হেলালপুর গ্রামে।

ময়েনের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায়, মঙ্গলবার ফজর নামাজের আগে প্রতিবন্ধী ওই নারির ঘরে প্রবেশ করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলার বাদি মুনসুর রহমান জানান, একই ঘরের পৃথক দুইটি চৌকির একটিতে আমিসহ স্ত্রী ও আরেক চৌকিতে আমার প্রতিবন্ধী মেয়ে শুয়ে ছিলাম। ফজর নামাজের আগে আমার স্ত্রী হাটতে বাইরে বের হয়ে দরজার শিকল দিয়ে যায়। তখন আমি ঘুমিয়ে ছিলাম। এসময় একই গ্রামের টগ মন্ডলের ছেলে ময়েন উদ্দীন ঘরে প্রবেশ করে মেয়েকে ধর্ষন করে। সেই মুহুর্তে জাগা পেয়ে ময়েন উদ্দীনকে আটক করি। পরে চেয়ারম্যানের মাধ্যমে থানায় জানানোর পর পুলিশ ময়েন উদ্দীনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

অভিযুক্ত ময়েন উদ্দীন ঘরে প্রবেশের সত্যতা স্বিকার করে বলেন, ওই নারির পাশে বসেছিলেন। তবে ধর্ষন করেননি বলে দাবি তার। ঘটনার পর বাদির বিরুদ্ধে তাকে মারধরের অভিযোগ তুলেন ময়েন উদ্দীন। তবে চড় থাপ্পড় মারার কথা স্বিকার করেছেন বাদি মুনসুর রহমান।

মামলার দদন্তকারি অফিসার উপরিদর্শক(এসআই) কেএম স্বপন হুসাইন জানান, মঙ্গলবার মামলা দায়েরের পর ময়েন উদ্দীনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আর ভিকটিমের শারিরিক পরীক্ষার জন্য রামেক হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *