তরুন চেয়ারম্যান সুমনকে উপজেলা কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করায় বিভিন্ন মহলের অভিনন্দন

রাজশাহী
সারোয়ার হোসেন, তানোর: তানোরের সীমান্তবর্তী ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের তরুন উদীয়মান পরপর দুবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সুমন কে মান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য  করা হয়েছে।  এখবরে ভারশোঁ ইউপি আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উৎফল্লিত।
চেয়ারম্যান সুমন জানান, আমার মত ক্ষুদ্র ব্যক্তিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য করায় আমার রাজনৈতিক অভিভাবক বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক মন্ত্রী একাধিক বারের সংসদ সদস্য বর্ষিয়ান রাজনীতি বিদ ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিকের প্রতি   আন্তরিক ভাবে কৃতজ্ঞতা  প্রকাশ করছি।তিনি আরো বলেন তার দিক নির্দেশনায় যাবতীয় উন্নয়ন কর্মকান্ড এবং দল পরিচালনা করার সুফল হিসেবে আমাকে কমিটিতে নেওয়া হয়েছে।
তিনি বর্তমান সভাপতি নাজিম উদ্দীন মন্ডল ও সাধারন সম্পাদক এডভোকেট নাহিদ মোর্শেদ বাবুর উপরেও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন  ।
সুমন বিগত ২০১৬ সালে দলীয় প্রতীকে প্রথম বারের মত নৌকা  পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার উন্নয়ন গ্রাম্য আদালত পরিচালা এবং সেবক হয়ে কাজ করার জন্য নওগাঁ জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যানের সম্মাননা পান। তিনি চলতি বছরে পুনরায় নৌকা প্রতীক পেয়ে নানা প্রতিকূলতার অবসান ঘটিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন আপামর জনতার ভোটে। তারপরও বিদ্রোহী প্রার্থীর মামলার বেড়াজাল ভেঙ্গে, অনেক জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে শপথ নিয়ে পুনরায় দায়িত্ব নেন তরুন প্রজন্মের আইকন মোস্তাফিজুর রহমান সুমন। স্বাধীনের পর থেকে ভারশোঁ ইউপির পরপর দুবার কেউ নির্বাচিত হতে পারেন নি। কিন্তু সুমন সেই ইতিহাস ভেঙ্গে নির্বাচিত হয়েছেন।
এছাড়াও তরুন এই চেয়ারম্যান কে উপজেলা কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করায় ভারশোঁ ইউপি আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্র লীগসহ বিভিন্ন মহল অভিনন্দন জানান।সেই সাথে চেয়ারম্যান সুমনের আগামীর  তরুন প্রজন্মের আইকন নেতৃত্বে পরিনত হবেন বলে আশাবাদী ভারশোঁ ইউপি আপামর জনতা। তার সফলতা কামনা করেন ভারশোঁ ইউপির বীর মুক্তিযোদ্ধারা।
চেয়ারম্যান সুমন জানান, আগামীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে তরুন মেধাবী নেতৃত্বের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।আমার অভিভাবক মাননীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ইমাজ উদ্দিন প্রামাণিকের পরামর্শে ও দিকনির্দেশনায় কাজ করার জন্য ভারশোঁ ইউনিয়ন মডেল ইউনিয়নে পরিনত হয়েছে। আমি যে সব এলাকায় ভোট কম পেয়েছি সে সব এলাকা থেকে উন্নয়ন শুরু করেছি।আমি প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করিনা। নিরপেক্ষ মনোভাব নিয়ে যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করার চেষ্টা করি।হয়তো এজন্যই দল আমাকে মুল্যায়ন করেছে। ইউপির উন্নয়নের জন্য সবার সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন তরুণ উদীয়মান চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান সুমন।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *