তানোরের ঠাকুরপুকুর মাদকে ছয়লাব, অভিযান জরুরী

রাজশাহী লীড

তানোর প্রতিনিধি: এ যেন এক আজব পাড়া। এই পাড়ায় প্রকাশ্যে দিবালোকে দিনে দুপুরে মহিলারা মাদক কেনা-বেচা করে আসলেও দেখার যেন কেউ নেই। নাকি থেকেও নেই। এমন মাদকের পাড়াটি হচ্ছে পৌর এলাকার ঠাকুর পুকুর। এখানে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে ইয়াবা, হিরোইন,গাঁজা বিক্রি।

 

সরেজমিনে পাড়াটি ঘুরে দেখা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে উর্তিবয়সের স্কুল কলেজ পড়ুয়া ছেলে ও মেয়েরা এসে এখানে মাদক কিন্তে। পাশাপাশি উপজেলারও বিভিন্ন এলাকা থেকে রিকশা চালক,অটো ভ্যান চালক ছাড়াও ভালো ভালো পরিবারের যুবকদেরও দেখা মিলছে এই পাড়ায় মাদক কিন্তে। দেখে মনে হচ্ছে এই পাড়াটি যেন কোন বড় মাছের আড়ৎ। কিন্তু বাস্তবে পাড়াটি ভয়াবহ মাদকের পাড়া। এই পাড়ায় মাদক কিন্তে ছোট বড় যেই আসছে তাকেই হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে মাদক।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,পীর সাহের নামের একজনের স্ত্রী হাওয়া বেগম ও তার ছেলে লিটন দীর্ঘদিন ধরে নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করে নারীদের দিয়ে প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন। এমনকি তাঁরা মাদক ব্যবসা করতে গিয়ে প্রশাসনের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে একাধিকবার। বর্তমানে থানায় তাদের নামে প্রায় ৮থেকে১০টির মত মাদক মামলা চলমান রয়েছে। জেল থেকে বের হয়েই আবারো শুরু করে মাদকের ব্যবসা। ফলে তাদের বিরুদ্ধে সাহস করে কেউ প্রতিবাদ করতে পারে না। যদি কেউ সাহস করে মাদক বিক্রি করতে তাদের নিষেধ করে তাহলে কোন কথা ছাড়াই মহিলা দিয়ে হাঁসুয়া, চপ্পল, লোহার রড দিয়ে মারপিট করা শুরু হয়ে যায়। এতে করে কেউ তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রামের একজন জানান, হাওয়া বেগম ও তার ছেলে লিটন দীর্ঘদিন ধরে প্রকার্শে ইয়াবা,গাঁজা,হিরোইন চোলাই মদের ব্যবসা করছেন। কিন্তু রহস্য জনক কারণে নীরব প্রশাসন। জনসাধারণও মাদক ব্যবসায়ীদের ভয়ে মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না। এতে করে দিন দিন আরো বেশি বেপরোয়া হয়ে উঠেছে তাদের মাদক ব্যবসা বলে প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

 

তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, আমি সদ্য নতুন যোগদান করেছি,তার পরেও আমি এসে এসে আগে মাদকের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ অভিযান পরিচালনা করে বিপুল পরিমাণ মাদকের ঘাঁটি ভেঙ্গে চুরমার করে উচ্ছেদ করেছি, ঠাকুর পুকুর গ্রামের বিষয়ে আমি শুনেছি এবং তাদের গ্রেপ্তার করতে কৌশল অবলম্বন করা হয়েছে, খুব শীঘ্রই বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হবে বলে তিনি উপজেলার সকল জনসাধারণকে নিজ নিজ গ্রামে মাদক বিরোধী আন্দোলন করে তোলার আহ্বান জানান।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *