অনুমোদন বিহিন কাজে স্বাক্ষর না করায় মেয়রকে মারপিটের ঘটনায় কাউন্সিলর গ্রেফতার

রাজশাহী লীড

নওগাঁ প্রতিনিধি : অনুমোদন বিহিন কাজে স্বাক্ষর না করায় নওগাঁর নজিপুর পৌর মেয়র রেজাউল কবির চৌধুরীকে মারপিট করার ঘটনায় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিজানুর রহমানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে নজিপুর পৌর ভবনে এ ঘটনা ঘটে। পরে পৌরভবনের লোকজন আহত মেয়রকে উদ্ধার করে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা নিন্দা ও তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

পুলিশ, স্থানীয় বাসিন্দা ও পৌরসভায় কর্মরত কয়েকজনের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান, সোমবার বেলা ১১টায় মেয়র রেজাউল কবির চৌধুরী পৌরভবনের নিচতলায় দাপ্তরিক কাজ করছিলেন। এ সময় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিজানুর রহমান মিতু তার কয়েকটি নথিতে স্বাক্ষর না করার জন্য মেয়রের কাছে কৈফিয়ত চান এবং তাৎক্ষণিক সেসব নথিতে স্বাক্ষর করতে বলেন। কিন্তু মেয়র রেজাউল কবীর চৌধুরী স্বাক্ষর করতে না চাইলে ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিতু মেয়রকে উদ্দেশ করে চেয়ার ছুঁড়ে মারেন এবং শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করেন। পরে পৌর সভার কর্মকতা-কর্মচারীরা মেয়রকে উদ্ধার করে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

এ বিষয়ে নজিপুর পৌর মেয়র রেজাউল কবীর চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, পৌরসভার অনুমোদন ছাড়াই ওয়ার্ড কাউন্সিলর মিতু নিজে কিছু কাজ করেছে। সেই বিলে আমাকে স্বাক্ষর দিতে বলেন। নিয়ম বহির্ভূতভাবে কাজের বিলে আমি স্বাক্ষর দিতে না চাইলে তিনি আমার ওপর অতর্কিত হামলা করেন। পরে তিনি থানায় মামলা করলে পুলিশ রাতেই মিজানুর ররহমান মিতুকে গ্রেফতার করেন। পৌর মেয়র ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন। পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. লিটন সরকার বলেন, পৌর মেয়রের সঙ্গে ওয়ার্ড কাউন্সিলর ঘটে যাওয়া ঘটনাটি অপ্রত্যাশিত। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে পত্নীতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জানান, আমি বিষয়টি জানার পর হাসপাতালে গিয়ে মেয়রের সাথে দেখা করি। মামলা দায়েরের পর রাতেই কাউল্সির মিজানুর রহমান মিতুকে গ্রেফতার করি। এ’ঘটনায় পৌরবাসী ওয়ার্ড কাউল্সির মিজানুর রহমান মিতুর দৃষ্টতমূলক শাস্তি দাবী করেন।

 

স্ব:বা/না

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *