তানোরে শত বছরের তাজা গাছ কর্তন

রাজশাহী

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে শত বছরের সরকারী রাস্তার ধারে কড়ই গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছেন সহকারী কমিশনার ভুমি স্বীকৃতি প্রামানিক বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। অথচ গাছ নাম্বারিং করা ছিল এবং জেলা পরিষদের গাছ বলে অভিযোগ উঠেছে। জেলা পরিষদের গাছ কোন ক্ষমতা বলে এসিল্যান্ড অনুমতি দিলেন এবং জানার জন্য একাধিক বার তার মোবাইলে ফোন দেওয়া হলেও রিসিভ করেন নি। বুধবার বিকেলের দিকে তানোর টু মুন্ডুমালা রাস্তার, মুন্ডুমালা কওমি মাদ্রাসার সামনে বিসিআইসির সার ডিলার এমদাদের বাড়ির সামনে ঘটে গাছ কাটার ঘটনাটি। শত বছরের এমন গাছ কাটায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেই সাথে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট কারী এসিল্যান্ড ও ডিলার এমদাদ তার ছেলে নাইস এবং বিএনপি নেতা আলহাজ্ব মোজাম্মেল হকের শাস্তির দাবি তুলেছেন পরিবেশ বিদরা।

বুধবার বিকেলের দিকে স্হানীয় দের অভিযোগের প্রেক্ষিতে সরেজমিনে এসে দেখা যায় , উপজেলার মুন্ডুমালা পৌরসভার বিসিআইসির সার ডিলার এমদাদ সরকারী রাস্তা দখল করে সার কীটনাশকের দোকান দিয়েছেন। দোকান ও তার দালান বাড়ির সামনে ছিল শত বছরের কড়ই গাছ। সেই কড়ই গাছটি বুধবার দুপুরের আগে থেকেই কাটা শুরু হয়। কাটা অবস্থায় গাছ পড়ে আছে এবং মিস্ত্রিরা গাছ উঠানোর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। ওই সময় এক মিস্ত্রি আসলে ক্যামেরা ধরে জানতে চাওয়া হয় কার হুকুমে গাছ কাটলেন। সাথে সাথে দোকান ঘর থেকে সার ডিলার এমদাদের ছেলে নাইস হুমকি দিয়ে বলেন কিসের ছবি তুলবেন, আমার ছবি ভালো করে উঠান,আমরা গাছ চুরি করিনি। সহকারী কমিশনার ভুমি স্বীকৃতি প্রামানিক স্যারের লিখিত কাগজ নিয়ে কেটেছি বলে কাগজ বের করে দম্ভক্তি প্রকাশ করেন।

এর পরেই আসেন মুন্ডুমালা বাজারের প্রভাব শালী বিএনপি নেতা শাহিন পেট্রোল পাম্পের মালিক আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক। তিনি জানান এসিল্যান্ড সহ ভুমি কর্মকর্তারা এসে মাপ জোক করে গাছ কাটার অনুমতি দিয়েছেন। এরপরেই বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন সার ডিলার এমদাদ, তিনি কোন কথা না বলে চুপ করে দোকানের ভিতরে যান।

গাছ কাটার জন্য কি ভাবে অনুমতি দেওয়া হলো জানতে সহকারী কমিশনার ভুমি স্বীকৃতি প্রামানিকে (০১৭১৬- ১৪৫৪১৪)মোবাইল নম্বরে একাধিকবার ফোন দেওয়া হলেও রিসিভ না করে বন্ধ করে দেন। ঘটনাস্থল থেকেই জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিলের সাথে যোগাযোগ করে বিস্তারিত বলা হলে তিনি বলেন দ্রুত ব্যবস্হা নেওয়া হবে এবং জেলা পরিষদের গাছ কেন এসিল্যান্ড দিবেন সে ব্যাপারেও গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে।

 

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *