সরকারি জায়গা দখলের প্রতিবাদ করায় ব্যবসায়ীকে মারধর

রাজশাহী লীড
আল-আফতাব খান সুইট, বাগাতিপাড়া (নাটোর): নাটোরে সরকারি জায়গা দখলের প্রতিবাদ করায় শহিদুল ইসলাম নামে এক ব্যবসায়ীকে মারধর করা সহ তার পরিবারকে প্রননাশের হুমকি দিয়েছে ফারুক ওরফে সিজার (২৭) নামে এক বখাটে যুবক। শহরের উত্তর বড়গাছা জলারপাড় এলাকা দিয়ে যাওয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানাউল্লাহ খালের জমি নেট দিয়ে দখল করে নিয়েছে ফারুক ওরফে সিজারের পিতা গোলজার হোসেন। শুক্রবার সকালে এই দখলের প্রতিবাদ করায় ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলামকে মারধর করা হয়। এঘটনার প্রতিকার ও নিজের নিরাপত্তা চেয়ে শুক্রবার বিকেলে সিজারের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি অভিযোগ করেছেন শহিদুল ইসলাম।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বছরখানেক আগে উত্তর বড়গাছা জলারপাড় এলাকা দিয়ে যাওয়া পানাউল্লাহ খালের উভয় পাড়ের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের মাধ্যমে দখলমুক্ত করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। সম্প্রতি জলারপাড়ের রাস্তাটি পাকা করা হলে আবারও নদের উভয় পাড় দখল শুধু করে পুর্বের দখলদাররা। এরই ধারাবাহিকতায় পানাউল্লা খালের একটি অংশ দখল করে নেট দিয়ে ঘিরে দেয় স্থানীয় গুলজার হোসেন নামের এক ব্যক্তি। স্লাব দিয়ে বাঁধাই করা পাড় মাটি দিয়ে ভরাট করে গাছ লাগিয়ে দখলে নেয় গুলজার হোসেন। এলাকার অর্ধশতাধিক পরিবার তাদের গৃহস্থালি বজর্য ফেলার জায়গা না পেয়ে ওই খালের ধারেই অপসারণ করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকালে খালের ধারে গৃহস্থালি বজর্য ফেলতে যান ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলাম। ওই বর্জের কিছুটা গুলজার হোসেনের দখল করা জায়গার ওপর পড়লে ক্ষিপ্ত হন গোলজার হোসেনের ছেলে ফারুক ওরফে সিজার। সিজার তার মাকে সাথে নিয়ে ব্যবসায়ী শহিদুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে। তাদের দখলে থাকা জায়গায় ময়লা কেন ফেলেছে সে কৈফিয়ত চায় সিজার। শহিদুলও পানি উন্নয়ন বোডের্র জায়গা কিভাবে ব্যক্তি মালিকানার হয় তা পাল্টা জানতে চেয়ে প্রতিবাদ করেন। এতে সিজার ক্ষিপ্ত হয়ে ব্যবসায়ী শহিদুলর ওপর চড়াও হয়ে ডান হাতে পাশে থাকা খড়ি দিয়ে বেধড়ক মারধর করলে তিনি আহত হন। এসময় তার চিৎকারে প্রতিবেশিরা ছুটে আসলে সিরাজ ও তার সহ দলবল চলে যায়। য়াওয়ার সময় পরিবারের সকলকে দেখে নেওয়া সহ প্রান নাশের হুমকি দিয়ে যায়।
ব্যাবসায়ী শহিদুল বলেন, সরকারি জায়গা দখলের প্রতিবাদ করায় বখাটে সিজার যে কোন সময় আমার বসতবাড়িতে হামলা বা রাস্তায় পরিবারের যে কোন সদস্যকে লাঞ্ছিত করতে পারে বলে আশঙ্কা করছি। এ ঘটনায় সপরিবারে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
নাটোর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ নাছিম আহমেদ বলেন, সরকারি জমি দখলের প্রতিবাদ করায় ব্যবসায়ীর ওপর হামলার ঘটনার পর এলাকায় পুলিশ পাঠানো হয়। তার পরিবারের পক্ষ থেকে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। বখাটে যুবক বর্তমানে পলাতক রয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *