বাঘায় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে স্বামী-স্ত্রীকে মারপিটের অভিযোগ

রাজশাহী

বাঘা প্রতিনিধিঃ বাঘায় সামান্য মাটি কাটার ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীকে মারপিটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বারশত দিয়াড় গ্রামে। শুক্রবার (০৬-০৫-২০২২) প্রতিপক্ষ রহমত আলীসহ তার পক্ষের অপর ভাইদের বিরুদ্ধে রেজাউল করিম বাদি হয়ে থানায় মারপিটের লিখিত অভিযোগ করেছেন ।

জানা গেছে,ওই গ্রামের মৃত আজিজুল হকের দুই স্ত্রী। এক স্ত্রীর পক্ষের রেজাউল করিম। আরেক স্ত্রীর পক্ষের রহমত আলীসহ ৫ ছেলে। তারা সকলেই আলাদা ঘর তুলে পাশাপাশি বসবাস করেন।

রেজাউল করিম অভিযোগ করেন, রহমত আলী তার বাড়ির পানি নামানোর জন্য একটি নালা করেন। বৃষ্টি হলে সেই নালার পানি উপচে পড়ে যাতায়াতের রাস্তায়। রেজাউল করিমের স্ত্রী সাথীয়ারা সামান্য মাটি কেটে নালার পাশ দিয়ে বেঁধে দেন। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে রেজাউল করিমের স্ত্রী সাথীয়ারাকে চড় থাপ্পড় মারে রহমত আলী।

বিষয়টি জানার পর সাথীয়ারার ভাই আল আমিন, রহমত আলীকে মারধর করে। এই ঘটনা ঘটে গত বৃহসপতিবার। সেই ঘটনার জের ধরে শুক্রবার সকালের দিকে রেজাউল করিমকে মারপিট করে। রেজাউল করিম জানান, এসব ঘটনায় রহমত আলীসহ তার অপর ভাই মিলন আলী, মোস্তফা আলী, বেল্লাল হোসেন ও রাশিদুল হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

ভাঙরি ব্যবসায়ী রেজাউলের কর্মচারি জামরুল জানান,ঘটনাস্থলে আমি না থাকলে তাকে বেশি মারপিট করতো। স্থানীয়রা জানান, মানষিক ভারসাম্য হারিয়ে একবছর পাবনা মানষিক হাসপাতালে ছিল রেজাউল করিম। সুস্থ হয়ে ভাঙরি ব্যবসা করছে।

রহমত আলী জানান, ঘরের পানি নামানোর জন্য যে নালা করা হয়েছে। সেটা আমার ঘরের পেছন দিকে। রেজাঊল করিমের স্ত্রী সাথীয়ারা আমার ঘরের পেছন দিকে মাটি কেটে সেটা বন্ধ করে দেয়। বিষয়টি তার কাছে জানতে চাইলে আমাকেই গালাগালি করে। পরে সাথীয়ারার ভাই আামাকে লাঞ্চিত করেছে। বিষয়টি নিয়ে রেজাউলকে বকাবকি করা হয়েছে,মারধর করা হয়নি। বাঘা থানার কর্তব্যরত অফিসার উপ পরিদর্শক আব্দুর রউফ জানান, অভিযোগ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য একজন অফিসারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *