তানোরে সাঁওতাল বিদ্রোহের ১৬৭ তম দিবস উৎযাপন

রাজশাহী

তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে সাঁওতাল বা সান্তাল বিদ্রোহের ১৬৭ তম দিবস পালন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩০ জুন) বিকালে উপজেলার পাঁচন্দর ইউপির ভীম পারায় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, খেলাধূলা এবং পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে সাঁওতাল বিদ্রোহের নানা গুরুত্বপূর্ণ দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আগামী সম্মেলনের সভাপতি প্রার্থী সাংসদ প্রতিনিধি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না । তিনি সাঁওতাল বা আদিবাসী সম্প্রদায়ের জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন বর্তমান সরকারের সময় আপনাদের জীবন যাপন অনেক বদলে গেছে, আপনাদের মাঝে অনেকের সন্তান এই সরকারের সময় প্রশাসন সহ বিভিন্ন দপ্তরে বিনা টাকায় সরকারি চাকুরী করছেন, এউপজেলারও অনেকে রয়েছেন । যার সকল কৃতিত্ব আপনাদের ভালোবাসার প্রিয় মানুষ সাংসদ ফারুক চৌধুরীর। যদিও বর্তমানে সাঁওতাল নামটা এবং বিদ্রোহ কি অনেকেই হয় তো জানেন না।

তিনি আরও বলেন, সাঁওতাল বিদ্রোহ থেকে অনেক কিছু জানার আছে এবং সেটাকে ধারন করতে হবে। শুধু এই বিদ্রোহ না, দেশ স্বাধীনতা আন্দোলন থেকে শুরু করে প্রতিটি ক্ষেত্রে রয়েছে আপনাদের প্রচুর ভুমিকা। বিশেষ করে আপনারা নৌকার প্রান। আপনাদের পুর্ব পুরুষরা নিজেদের অধিকার আদায়ে এবং ব্রিটিশ ইংরেজ ও জমিদারদের অত্যাচার শোষণের বিরুদ্ধে যে কারনে বিদ্রোহ করেছিলেন এই সরকার সেদিক বিবেচনা করে আপনাদের ছেলে মেয়েদের শিক্ষা বৃত্তি থেকে শুরু করে নানান ধরনের সুবিধা দিয়ে যাচ্ছেন, এবং দিয়ে যাবেন। ১৮৫৭ সালে ওই সময় সিপাহি বিদ্রোহের দুই বছর আগে ১৮৫৫ সালে ইংরেজদের বিরুদ্ধে প্রথম বিদ্রোহ ছিল সাঁওতাল বা সান্তাল বিদ্রোহ । তাদের অত্যাচারিত শাসন থেকে এবং তাদের দেশ ত্যাগে প্রথম বিদ্রোহ ছিল সাঁওতাল বিদ্রোহ। এক কথায় ইংরেজ দের বিরুদ্ধে স্বাধিকার ফিরিয়ে আনার নামই সাঁওতাল বিদ্রোহ। ৩০ জুন বৃহস্পতিবার ২০২২ সাল ১৬৭ তম বিদ্রোহ। সারা দেশে নানান ভাবে পালিত হচ্ছে দিবসটি। ১৬৭ তম বছর ধরে দিবসটি পালিত হচ্ছে। সাঁওতাল বিদ্রোহ থেকে শিক্ষা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ গড়তে আহবানও জানান । আপনারা বর্তমান সরকারের তৃনমুলের প্রান। আপনাদের বড় দিন উৎযাপন থেকে শুরু করে সকল দিবস পালনে থাকে সরকারি ভাবে সহায়তা।

তিনি সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী পক্ষ থেকে সবাইকে শুভেচ্ছা বার্তা পৌছিয়ে দেন।

মুন্ডুমালা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামিল মার্ডির সভাপতিত্বে ও সুনিল কুমারের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন , উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওহাব হোসেন লালু, যুগ্ম সম্পাদক শিক্ষক রাম কমল সাহা, সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, দপ্তর সম্পাদক শিক্ষক জিল্লুর রহমান, পাঁচন্দর ইউপির চেয়ারম্যান ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মতিন, তানোর পৌর সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ প্রদীপ সরকার, মুন্ডুমালা পৌর সম্পাদক আমির হোসেন আমিন,উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জুবায়ের ইসলাম, চান্দুড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান ইউপি সভাপতি মজিবর রহমান , কলমা ইউপি সভাপতি মাইনুল ইসলাম স্বপন, কামারগাঁ ইউপির চেয়ারম্যান ইউপি সভাপতি ফজলে রাব্বি ফরহাদ, বাধাইড় ইউপির চেয়ারম্যান ইউপি সম্পাদক আতাউর রহমান প্রমুখ । আরো উপস্থিত ছিলেন , উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব সাইদুর রহমান সরকার আবু সাঈদ, তানোর পৌর সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজির হাসান প্রতাপ সরকার, সেনিক লীগ সভাপতি বদিউজ্জামান নয়ন, কলমা ইউপির ছাত্র লীগের সভাপতি মোর্শেদুল মোমেনিন রিয়াদ প্রমুখ।

উপজেলার বিভিন্ন স্হানে পালিত দিবসটি। তাদের ঐতিহ্য নাচ গানেও পালন করা হয়। এসময় সাঁওতাল সম্প্রদায়ের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী থেকে শুরু করে নবীন প্রবীনরাও উপস্থিত ছিলেন।

স্ব.বা/ম

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.