বাঘায় ঈদে ফ্রিজ কেনার ধুম

বিশেষ সংবাদ রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি: মাত্র একদিন বাঁকি পবিত্র ঈদুল আযহার । সামনে একেবারেই সময় নেই। ফ্রিজে কোরবানি দেওয়া পশুর মাংস সংরক্ষণ হবে । পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে ফ্রিজের চাহিদা বেড়েছে। কোরবানির ঈদ ঘনিয়ে আসতেই উপজেলা জুড়ে ফ্রিজ কেনার ধুম পড়ে গেছে।

উপজেলার সদর ও আশেপাশের বাজারগুলোসহ বিভিন্ন কোম্পানীর বিক্রয় কেন্দ্রেগুলোতে ফ্রিজ বিক্রিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন বিক্রেতারা। তারা জানান, একদিনের মধ্যে এ ব্যস্ততা আরও বাড়বে। ওয়ালটন, মাইওয়ান, যমুনা, মিনিস্টার, মার্সেলের মতো দেশীয় ব্র্যান্ডের চাহিদা গ্রামে বেশি হলেও পাশাপাশি গ্রামের অনেকেই দামি ব্রান্ডের হিটাচি, সিঙ্গার, এলজি , অ্যারিস্টন, স্যামসাং, শার্পসহ আমদানি করা বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ফ্রিজ কিনতে দেখা গেছে । ফ্রিজ বিক্রেতা জানান, ঈদুল আযহাকে কেন্দ্র করে এবারে প্রচুর পরিমাণে ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে। দেশে ১০০ লিটার থেকে ৪০০ লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন ওজনের ফ্রিজ পাওয়া যায়। তবে ১৫০ থেকে ২০০ লিটার ওজন ধারণক্ষমতার ফ্রিজ বিক্রি সবচেয়ে বেশি হচ্ছে। বছরের এ সময়ে সর্বোচ্চ বেশি ফ্রিজ বিক্রি হয়।

 

উপজেলা ওয়ালটন প্লাজা শো রুমের ম্যানেজার মাজেদুল ইসলাম বলেন, ঈদুল আযহা উপলক্ষে অত্যাধুনিক ডিজাইন এবং মানের সব ফ্রিজ সাজিয়ে রাখা হয়েছে। ক্রেতারা ঘুরে ঘুরে ফ্রিজ দেখছেন। আর ক্রেতা এবং দর্শনার্থীদের ফ্রিজ সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হচ্ছে ।

বছরের সবচেয়ে বেশি ফ্রিজ বিক্রি হয় এই সময়ে। এবারের কোরবানি ঈদকে কেন্দ্র করে ১ কোটি টাকার সামগ্রী বিক্রির লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি। লক ডাউনের বেচকেনা কম হয়েছে।এর মাঝে ২০লাখ টাকা ইলেকট্রনিকস বিক্রি করেছি। কোরবানি যত ঘনিয়ে আসছে বিক্রি ততোই বাড়ছে।

ঈদুল আযহা উপলক্ষে ফ্রিজে আকর্ষণীয় মূল্যছাড় দিয়েছে অনেকেই। এ কোম্পানির মূল্যছাড়ের পাশাপাশি উপহার দিচ্ছে অনেক কোম্পানি ।
আড়ানী বাজারের ফ্রিজ বিক্রেতা আফাজ কর্পোরেশনের মালিক আরিফুল ইসলাম বলেন, ঈদুল আযহা উপলক্ষে ফ্রিজের চাহিদা বেশ বেড়েছে। কোরবানি ঈদ উপলক্ষে ৫০০ ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও ইতোমধ্যে ৪০টি ফ্রিজ বিক্রি করেছি।

উপজেলার দিঘা বাজারের মাইওয়ান মিনিষ্টার শো রুমের মালিক শামীম আহম্মেদ বলেন, ঈদুল আযহা উপলক্ষে ১০০ ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন। আজ পর্যন্ত ৩৩টি ফ্রিজ বিক্রি করেছি। ঈদুল আযহা উপলক্ষে ফ্রিজ মূল্যছাড় বিক্রি করছেন। ফ্রিজের মধ্যে ২২ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৩৫হাজার টাকা দামের ফ্রিজ রয়েছে।

দিঘা বাজারে হাজি সুপার মার্কেটে ফ্রিজ কিনতে আসেন সহিদুল ইসলাম। অনেক আগে থেকে পরিকল্পনা করে ছিলাম। এবার ঈদে বাড়িতে ব্যবহারের জন্য একটি ফ্রিজ কিনবো। কোরবানির মাংস সংরক্ষণ করতে ফ্রিজ প্রয়োজন। দর-দামে মিললে গেলে আজকেই কিনে ফেলবো।

 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *