‘সবার জন্য প্রয়োজন জন্ম ও মৃত্যুর পরপরই নিবন্ধন’

বিশেষ সংবাদ

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  ‘জাতীয় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস’ ৬ অক্টোবর, বুধবার। দিবসটিতে এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে- ‘সবার জন্য প্রয়োজন জন্ম ও মৃত্যুর পরপরই নিবন্ধন’।
বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে দেশে দিবসটি পালন করা হচ্ছে। ২০১৭ সাল থেকে প্রতি বছর ৬ অক্টোবর জাতীয় জন্মনিবন্ধন দিবস পালিত হয়ে আসছে।
স্থানীয় সরকার বিভাগ ও ইউনিসেফ-বাংলাদেশের উদ্যোগে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় ক্রোড়পত্র, বিজ্ঞাপন প্রকাশ এবং বাংলাদেশ বেতার এবং বাংলাদেশ টেলিভিশনসহ অন্যান্য বেসরকারি টেলিভিশনে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
দিনটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালন করা হবে। এর মধ্যে বুধবার সকালে কাকরাইলের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর অডিটোরিয়ামে জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন দিবস উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এতে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।
১৮৭৩ সালের ২ জুলাই ব্রিটিশ সরকার অবিভক্ত বাংলায় জন্মনিবন্ধন-সংক্রান্ত আইন জারি করে। জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন অনুযায়ী পাসপোর্ট ও ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রাপ্তি, বিয়ের নিবন্ধন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি, ভোটার তালিকা তৈরি এবং জমি নিবন্ধনে জন্মসনদ ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *