প্রথম দফায় সবাই নেগেটিভ, কাল দ্বিতীয় পরীক্ষা

খেলাধুলা

স্বদেশবাণী ডেস্ক: করোনার প্রভাব খুব একটা নেই বাংলাদেশে। তাই নতুন বছরের শুরুতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলকে আতিথেয়তা দেবে বাংলাদেশ। যা দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবে তামিম-মুশফিকরা। আসন্ন সিরিজ ঘিরে সর্বোচ্চ শারীরিক ও মানসিক প্রস্তুতি নিচ্ছে লাল-সবুজরা। এরই অংশ হিসেবে করোনা পরীক্ষা করা হলো সিরিজ সংশ্লিষ্ট প্রায় ২শ’ জনের। তবে আশার কথা হলো, সবাই নেগেটিভ। আগামীকাল শনিবার দ্বিতীয় দফা হবে পরীক্ষা।

শেরে বাংলার মাঠকর্মী থেকে শুরু করে জাতীয় দলের সাপোর্টিং স্টাফ আর হোটেল সোনারগাঁওয়ের যেসব স্টাফ দলের বহরে সেবায় নিয়োজিত থাকবেন, তাদেরও নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আর বৃহস্পতিবার (৭ জানুয়ারি) নমুনা দিয়েছেন ৩০ ক্রিকেটার।

এ ব্যাপারে আজ শুক্রবার সকালে বিসিবি প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, ‘দুইদিনে সবমিলিয়ে প্রায় ২শ’ জনের কোভিড পরীক্ষার জন্য নমুনা নেয়া হয়েছিল। আশার কথা হলো কেউই পজেটিভ নন, অর্থাৎ আসন্ন সিরিজ সংশ্লিষ্ট কেউই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত নয়।’

তবে তিনি এও জানান, ‘প্রথম দফায় নেগেটিভ আসা মানেই পুরোপুরি স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ নেই। শতভাগ নিশ্চিত হতে আগামীকাল শনিবার আবার নেয়া হবে সবার নমুনা। সেখানে যাদের টেস্টের ফল নেগেটিভ আসবে, তারাই প্রবেশ করবেন জৈব সুরক্ষা বলয়ে। তার আগে আজ সব ক্রিকেটারদের নিজ নিজ বাসস্থানে সেলফ আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়েছে।’

আসন্ন এ সিরিজে তিন ওয়ানডে ও দুই টেস্ট সিরিজে মুখোমুখী হবে স্বাগতিক বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইতিমধ্যে দলও ঘোষণা করেছে বিসিবি। যেখানে ওয়ানডের জন্য ২৪ ও টেস্টের জন্য ২০ সদস্যকে প্রাথমিকভাবে দল রাখা হয়েছে।

ওয়ানডে দল থেকে বাদ পড়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। এদিকে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দুই ফরম্যাটের দলে ফিরছেন সাকিব আল হাসান। নতুন করে দলে ডাক পেয়েছেন বাঁ হাতি পেসার শরিফুল ইসলাম ও বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান পারভেজ হোসেন ইমন।

ওয়ানডের প্রাথমিক দল দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে আগামী ১৪ ও ১৬ জানুয়ারি মিরপুরে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে। প্রস্তুতি ম্যাচের পারফরম্যান্সে নিশ্চিত হবে চূড়ান্ত দল। ১৬ জানুয়ারি ম্যাচের পর ১৭ সদস্যের চূড়ান্ত দল ঘোষণার কথা রয়েছে।

করোনা পরীক্ষার হলে আগামীকাল থেকে জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকে যাবেন ক্রিকেটাররা। একদিন বিরতির পর ১০ জানুয়ারি থেকে চলবে টানা অনুশীলন। মাঝে খেলবে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ।

আগামী ১০ জানুয়ারি ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল বাংলাদেশে পা রাখবে। কোয়ারেন্টাইন শেষে ২০ জানুয়ারি ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে দুই দেশের ক্রিকেটীয় লড়াই। শেষ দুটি ওয়ানডে ২২ ও ২৫ জানুয়ারি। প্রথম দুই ম্যাচ মিরপুরে হলেও শেষটি হবে চট্টগ্রামে।

এরপর বন্দরনগরীতেই শুরু হবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। প্রথম টেস্টটি শুরু হবে ৩ ফেব্রুয়ারি। আর ১১ ফেব্রুয়ারি শেষ টেস্ট খেলতে ঢাকায় ফিরবে দুই দল।

বাংলাদেশের ওয়ানডে প্রাথমিক দল : 
তামিম ইকবাল,  তাসকিন আহমেদ, সাকিব আল হাসান, আল আমিন হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্ত, শরিফুল ইসলাম,মুশফিকুর রহিম, হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ মিঠুন, সাইফউদ্দিন, লিটন দাস, মোস্তাফিজুর রহমান, মাহমুদউল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, আফিফ হোসেন, তাইজুল ইসলাম, মোসাদ্দেক হোসেন, নাসুম আহমেদ, সৌম্য সরকার, পারভেজ হোসেন ইমন, মেহেদী হাসান, ইয়াসির আলী, নাঈম শেখ ও রুবেল হোসেন।

টেস্ট দল : 
মুমিনুল হক, তামিম ইকবাল, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটরমন কুমার দাশ, মিথুন আলী, ইয়াসির আলী, আবু জায়েদ চৌধুরী, তাসকিন আহমেদ, খালেদ আহমেদ চৌধুরী, হাসান মাহমুদ, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, কাজী নুরুল হাসান সোহান, সাদমান ইসলাম, নাঈম হাসান ও ইবাদত হোসেন চৌধুরী।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *