২১১ রানের টার্গেটে ব্যাট করছে বাংলাদেশ

খেলাধুলা

স্বদেশবাণী ডেস্ক: টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভালো সংগ্রহ দাঁড় করালো নিউজিল্যান্ড। প্রথমদিকে ২ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়লেও শেষ পর্যন্ত চাপ সামলে ব্যাটে ঝর তোলে কিউই ব্যাটসম্যানরা। ডেভন কনওয়ের অপরাজিত ৯২ রানের সুবাদে ২১০ পুঁজি পায় নিউজিল্যান্ড।

২১১ রানের টার্গেট সামনে রেখে ব্যাট নিয়ে নামেন মোহম্মদ নাঈম ও লিটন দাস। নাঈম ১০ বল মোকাবেলায় ৩ চারে ১৪ রানে ব্যাট করছেন। অপরপ্রান্তে লিটনের ব্যাট থেকে এসেছে ৪ রান।

এর আগে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হয়েছে নাসুম আহমেদের। অভিষেক ম্যাচেই তার প্রথম আঘাতে ০ রানে ফিরেন ফিন আনেনকে। এরপর অপর ওপেনার মার্টিন গাপটিলের উইকেটটিও তুলে নেন নাসুম। তার আগে ২ ছয় ও  ৩ চারে ৩৫ রান করে যান গাপটিল।

হ্যামিল্টনে টস জিতে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টিম সাউদি ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। এই ম্যাচে ঘরোয়া ক্রিকেটে ঝড় তোলা ফিন অ্যালেন অভিষেকের ম্যাচে পেলেন উল্টো স্বাদ। প্রথম বল ফেইজ করতে যেয়ে টাইগার দলের অভিষিক্ত বাঁ হাতি স্পিনার নাসুম আহমেদের বলে বোল্ড হয়ে মাঠ ত্যাগ করতে হয় ফিনকে।

নিজের তৃতীয় ওভারে আরেকটি উইকেট পেলেন অভিষিক্ত নাসুম। এবার তার শিকার মার্টিন গাপটিল। ডানহাতি আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান নাসুমের বলে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে লং অফে ক্যাচ দেন। গাপটিলকে এগিয়ে আসতে দেখে বল কিছুটা টেনে দিয়েছিলেন নাসুম। টাইমিংয়ে গড়বড় করে গাপটিল ক্যাচ দেন সৌম্যর হাতে।

উইল ইয়ং ৪ ছয় ও ২ চারে ৫৩ রানে মেহেদি হাসানের বলে আফিফ হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি। এরপর অবশ্যই টাইগার বোলাররা আর কোন উইকেট ফেলতে পারেনি। ডেভন কনওয়ের সাথে যোগ দিয়ে গিলেন ফিলিপস ১ ছয় ও ৩ চারে ২৪ রানে থাকেন অপরাজিত। তাতে শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২১০ রান।

এদিকে মুশফিকুর রহিমকে ছাড়া প্রথম টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নামে বাংলাদেশ। জানা গেছে, কাঁধের পুরোনো ইনজুরিতে নতুন করে চোট পেয়েছেন তিনি। শেষ ওয়ানডেতে তাসকিন আহমেদের বল হেনরি নিকোলসের ব্যাটের কানায় গেলে মুশফিকের গ্লাভস ছুঁয়ে বাউন্ডারিতে যায়। ড্রাইভ দিয়ে বল ধরার চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু পারেননি। এরপর তাকে অস্বস্তিতে দেখা যায়। ম্যাচের বাকিটা সময় কিপিং চালিয়ে গিয়েছিলেন। নেমেছিলেন ব্যাটিংয়েও। কিন্তু ব্যথা না কমায় প্রথম টি-টোয়েন্টিতে নিজেকে সরিয়ে রেখেছেন মুশফিক।

বাংলাদেশের একাদশে জায়গা পেয়েছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম ও বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ। দুজনেরই আন্তর্জাতিক অভিষেক হচ্ছে এই ম্যাচ দিয়ে। দুজনেরই বেশ কিছু দিন ধরে দলের সঙ্গে থাকার পর প্রথম ম্যাচ খেলার সুযোগ হচ্ছে।

বাংলাদেশ একাদশ: লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মোহাম্মদ মিঠুন, আফিফ হোসেন, মেহেদি হাসান, মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ, শরিফুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: টিম সাউদি (অধিনায়ক), ডেভন কনওয়ে (উইকেটরক্ষক), লকি ফার্গুসন, মার্টিন গাপটিল, ফিন অ্যালেন, হ্যামিশ বেনেট, মার্ক চ্যাপম্যান, ড্যারেল মিচেল, গ্লেন ফিলিপস, ইশ সোধি ও উইল ইয়ং।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *