ব্ল্যাক ক্যাপসদের এই সিদ্ধান্ত ক্ষমার অযোগ্য: আফ্রিদি

খেলাধুলা
স্বদেশবাণী ডেস্ক: ১৮ বছর পর পাকিস্তান সফরে গিয়ে বেঁকে বসে নিউজিল্যান্ড দল। উড়ো হুমকি পাওয়ার কথা বলে রাওয়ালপিন্ডিতে ওয়ানডে সিরিজ শুরুর ঠিক দেড় ঘণ্টা আগে হঠাৎ সফর বাতিল করেন কিউইরা।
কিউইরা পাকিস্তান ছাড়ার পর দিনই তাদের অনুসরণ করে আগামী মাসের পাকিস্তান সফর বাতিল করে ইংল্যান্ড। একই পথে হাঁটতে চাইছে অস্ট্রেলিয়াও।
এককথায় নিউজিল্যান্ডের সেই সিদ্ধান্তের কারণে বড় ধরনের ক্ষতির মুখে পাকিস্তান ক্রিকেট। দেশের ক্রিকেটের এই সংকটময় অবস্থার উত্তরণে গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পাকিস্তান।
প্রাথমিক তদন্তের পর পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী অভিযোগ করেছেন, নিউজিল্যান্ড  দল ও তাদের দলের ওপেনার মার্টিন গাপটিলের স্ত্রীকে হুমকি দেওয়া  মেইলগুলো পাঠানো হয়েছিল ভারতের মুম্বাই থেকে ভিপিএনের মাধ্যমে সিঙ্গাপুরের লোকেশন ব্যবহার। এমন খবর প্রকাশ্যে আসতেই পাক-ভারত ক্রিকেট বৈরিতা নতুন করে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।
তবে প্রসঙ্গ এড়িয়ে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি দেশটির ক্রিকেটকে পিছিয়ে দেওয়ার জন্য নিউজিল্যান্ডকেই দুষলেন। তার মতে, ভারত-পাকিস্তানের ক্রীড়াঙ্গনে যত বিরোধ থাকুক, অন্যান্য দেশের এটি নিয়ে চিন্তার কারণ নেই। এমন হুমকি পেলে কিউই বোর্ডের উচিত ছিল পিসিবির সঙ্গে আগে কথা বলা। তার পর সিদ্ধান্ত নেওয়া। ব্ল্যাক ক্যাপসদের এ সিদ্ধান্ত ক্ষমার অযোগ্য।
সম্প্রতি ক্রিকেট পাকিস্তানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটিই বললেন শহীদ আফ্রিদি।
নিউজিল্যান্ডের সেই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে আফ্রিদি বলেন, ‘আমার কথা হলো— এমন ছোট ছোট বিষয়ের ওপর, মিথ্যা ই-মেইলের ওপর ভরসা করে যদি সফর বাতিল করে দেন, তা হলে তো আপনি তাদের জিততে সুযোগ দিচ্ছেন। এটি মোটেও সঠিক পথ নয়।
সাবেক পাক অলরাউন্ডার বলেন,  ‘যদি বৃহৎ স্বার্থের কথা ভাবি, আমাদেরও সামনে এমন কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হবে, যাতে সবাই বুঝতে পারে আমরাও একটি দেশ এবং আমাদের সম্মান রয়েছে। করোনা পরিস্থিতিতে ইংল্যান্ডে ট্রেনের মধ্যে জঙ্গি হামলা হয়েছিল, ক্রিকেট কিন্তু চালু ছিল।’
তথ্যসূত্র: ডব্লিউআইওএন, হিন্দুস্তান টাইমস
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *