মালদ্বীপের কাছে বাংলাদেশের পরাজয়

খেলাধুলা

স্বদেশবাণী ডেস্ক: শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় দিয়ে চমক দেখিয়েছিলো জামাল ভুঁইয়ারা। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টে দারুণ শুরুর ধারাবাহিকতা ধরে রেখে ভারতের সঙ্গে ড্র করে লাল সবুজের দল বাংলাদেশ। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে স্বাগতিক মালদ্বীপের বিপক্ষে মাঠে নামে তারা। কিন্তু টুর্নামেন্টে শুভসূচনা করা বাংলাদেশ মাঠ ছাড়ে খালি হাতে। ২-০ ব্যবধানে মালদ্বীপের কাছে পারাজিত তারা।

মালদ্বীপের রাজধানী মালের রাশমি ধান্দু স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় শুরু হয় ম্যাচটি।

স্বাগতিকদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলে দুই পরিবর্তন আনেন অস্কার ব্রুজন। কার্ডের খাঁড়ায় ছিটকে যাওয়া বিশ্বনাথ ঘোষ ও রাকিব হোসেনের জায়গায় সুযোগ পান রহমত মিয়া ও সোহেল রানা।

ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে রেখে ঘরের মাঠে নিজেদের আধিপত্য দেখাতে শুরু করে মালদ্বীপ। তবে বাংলাদেশের জমাট বাধা রক্ষণে ফাটল ধরাতে পারেনি তারা। শুরুর ২০ মিনিটে তাই আনিসুর রহমান জিকোর কোনো পরীক্ষাই নিতে পারেননি আলি আশফাক-আলি ফাসিররা।

তবে রক্ষণ সামলে প্রতি আক্রমণে বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করে বাংলাদেশ। ম্যাচের দুই মিনিটের মাথায় বিপলু আহমেদের নেওয়া দারুণ এক শট মালদ্বীপের গোলরক্ষক মোহাম্মদ ফয়সাল রুখে দেন। এরপর নবম মিনিটে তারই নেওয়া শট চলে যায় ক্রসবারের উপর দিয়ে।

ম্যাচের ২৯তম মিনিট বেঁচে যায় বাংলাদেশ। বক্সের মাঝামাঝি বল পেয়েও আশফাক আড়াআড়ি ক্রস বাড়ান বাঁ দিকে থাকা নিহান হোসেনের উদ্দেশে। সাদ উদ্দিন পথ আগলে দাঁড়ানোয় ঠিকঠাক শট নিতে পারেননি নিহান। বল চলে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে।

প্রথমার্ধের শেষ দিকে ডান দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা আলি ফাসিরকে ট্যাকল করে হলুদ কার্ড দেখেন কাজী তারিক রায়হান। বুদ্ধিদ্বীপ ছোট ফ্রি কিকে আশফাক বল দেন বক্সে ফাঁকায় থাকা ফাসিরকে। এই ফরোয়ার্ডের শট কর্নারের বিনিময়ে ফেরান রহমত মিয়া।

বিরতি থেকে ফিরেই গোলের দেখা পায় স্বাগতিক দল। ৫৫ মিনিটে হুসেইন নিহানের হেড থেকে হামজা মোহামেদ বাইসাইকেল কিকে দূরের পোস্ট দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন। গোলকিপার জিকো কিছুই করতে পারেননি।

পিছিয়ে পড়ার পর দলে তিন পরিবর্তন আনেন অস্কার ব্রুজন। মাঠে নামেন জুয়েল রানা, মাহবুবুর রহমান সুফিল ও সুমন রেজা। এতে করে রক্ষণাত্মক কৌশল থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা ছিল। তারপরেও হতাশ হতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

গোল করা তো দূরের কথা উল্টো ম্যাচের ৭৩ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় মালদ্বীপ।

পয়েন্ট টেবিলে দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে আছে নেপাল। এক জয়, এক ড্র ও এক পরাজয় নিয়ে দ্বিতীয়তে আছে বাংলাদেশ। আর দুই ম্যাচ খেলে এক জয় ও এক হার নিয়ে তিনে আছে মালদ্বীপ। দুই ড্রয়ে ২ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে সাফের রেকর্ড সাতবারের চ্যাম্পিয়ন ভারত। তিন ম্যাচে ১ পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে শ্রীলঙ্কা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *