নৌকাকে বিজয়ে করতে শিবগঞ্জ আওয়ামী লীগ ঐক্যবদ্ধ’

রাজশাহী

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি: শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আতাউর রহমান বলেন, নৌকার ঘাটি শিবগঞ্জে দলকে সুসংগঠিত করতে হবে। আমরা নতুন নেতৃত্ব তৈরি করতে চাই। নৌকার প্রার্থী ডা. সামিল উদ্দিন আহম্মেদ শিমুল তরুণ মানুষ। তার বাবা মন্টু ডাক্তার সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান। জীবনে কখনো তিনি নিজের কথা চিন্তা করেন নি। জাতীয় স্বার্থে, জনগণের স্বার্থে রাজনীতি করছেন। সেই পরিবারের ছেলে শিমুল। আমাদের ছেলে, ছোট ভাই উনি মনোনয়ন পেয়েছেন। মান-অভিমান ভুলে নৌকাকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। প্রয়াত নেতা মন্টু ডাক্তার সাহেব প্রায়শ বলতেন- আমাদের বয়স বেশি, পাপ বেশি, অভিজ্ঞতাও বেশি। পড়াশোনা কম জানলেও কিছু তো জানি। হতাশাব্যঞ্জক কথা কেন বলেন? অনুরোধ করবো বলবেন না। ভোটের পার্সেন্টের কথা বলেন। এই সিট তো আওয়ামী লীগের।

কেউ কাউকে আঘাত না করে, সবাইকে যাতে একসাথে সমন্বয় করে নিয়ে আসতে পারি সে আঙ্গিকে কথা বলেন। কে কাছে ছিলেন আর কে ছিলেন না এমন কথা আসবে কেন? আমি তো মনে করি, যারা ৪ জন প্রার্থীর সাথে ছিলেন, সবাই তো আমরা এক জায়গায় আছি। চার প্রার্থী একত্রিত। দলের স্বার্থে, নেত্রীর নিদের্শে আমরা কেন পিছিয়ে থাকবো। নৌকাকে বিজয়ী করতে, আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে পরস্পর মত বিনিময় করে, সুন্দর আচারণ দিয়ে সমন্বয় করে আমাদেরকে কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের একত্রিত করে নিয়ে আসার জন্য উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার বজলার রশিদ সনুকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে শিবগঞ্জ বাজারে পার্টির অস্থায়ী অফিসে শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি মির্জা শাহদাত হোসেন খুররম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বজলার রশিদ সনু, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মঈন খাঁন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগ নেতা সফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুর রহমান বাবু, শিবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কারিবুল হক রাজিন, কানসাট ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বেনাউল হক, দাইপুখুরিয়া ইউনিয়নের সভাপতি একেএম আজমল হক বাদশা, মনাকষা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সেরফান, উপজেলা কৃষক লীগ সভাপতি মামুন অর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান হিটুল প্রমুখ।

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বজলার রশিদ সনু বলেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা, মুক্তিযোদ্ধারা ঐক্যবদ্ধভাবে আছি। নৌকার বিজয়কে কোন অপশক্তি ছিনিয়ে নিতে পারবে না।

পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিন বলেন, নৌকার বিজয়কে নিশ্চিত করতে আমরা যাতে একসাথে নামতে পারি সেজন্যই আজকের এই সভা। পৌর নির্বাচনে ভুল করেছিলাম, নেত্রী ক্ষমা করেছেন। মঈন ভাইও ( পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী) উপস্থিত আছেন। প্রয়োজনে মঈন ভাইকে মেনে তার কর্মী হয়েও কাজ করতে প্রস্তুত আছি।

মনাকষা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সেরফান বলেন, আলাদা আলাদা না থেকে আমরা সবাই যদি একত্রিত হয়ে মাঠে নামতে পারি। তবেই ৩০ তারিখের নির্বাচনে জয়লাভ করা সম্ভব হবে।

এ সময় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, ৭টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, কৃষক লীগ, প্রজন্মলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.