‘বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠে গেছে: মেয়র লিটন

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার:

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে উঠে গেছে। এখন দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। এটি আমাদের অহংকার, এটি আমাদের গর্ব।’

বৃহস্পতিবার সকালে রাজশাহী কলেজ মাঠে আয়োচিজত তিন দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন সেখানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দিচ্ছিলেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের প্রতি টার্গেট করে পুরো ভারতবর্ষ তাকিয়ে আছে। তারা অবাক হয়ে তাকিয়ে দেখছে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে কীভাবে। এই এগিয়ে যাওয়া সম্ভব হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে। তার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সবদিক দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। তার প্রমাণ আজকে আমরা আবারো পেলাম এই উন্নয়ন মেলা থেকে।

মহানগর আওয়ামী লীগের এই সভাপতি বলেন, কিছুদিন আগে এক অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কাছে পাকিস্তানকে সুইডেনের মতো দেশ বানানোর প্রস্তুাব এসেছিল। সেই অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, সুইডেন বানানোর চিন্তা ছেড়ে দাও, পাকিস্তানকে বাংলাদেশ বানিয়ে দাও। আমরা এখন সব সূচকে পাকিস্তানের চেয়ে অনেক উপরে।

লিটন বলেন, রাজশহীতেও উন্নয়ন হচ্ছে। আগামী কয়েক মাসের মধ্যে রাজশাহীর পদ্মা নদীতে ক্যাপিটাল ড্রেজিং করা হবে। নগরীর তলদেশে ভরাট হয়ে যাওয়া মাটি শহরের পাশে ফেলে ভরাট করা হবে। আমরা প্রায় ১০ থেকে ১৫ বর্গকিলোমিটার জায়গা নতুন করে উদ্ধার করতে পারবো। সেখানে আমরা অনেক স্থাপনা করতে পারব। বিনোদন কেন্দ্র হবে, ইকো পার্ক হবে।

জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ভূমি সংরক্ষণ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সালমা আকতার জাহান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এনজিও ব্যুরোর মহাপরিচালক কেএম আব্দুস সালাম, বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর রহমান, মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক এম খুরশীদ হোসেন, মহানগর পুলিশের কমিশনার একেএম হাফিজ আক্তার, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য আকতার জাহান, সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপিকা জিন্নাতুন নেসা তালুকদার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে রাজশাহীর উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনসহ অন্যান্য অতিথিরা। এরআগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজশাহীসহ সারাদেশে একযোগে উন্নয়ন মেলা-২০১৮ এর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিকে সকাল সাড়ে ৯টায় নগরীর কুমারপাড়া মোড় থেকে উন্নয়ন মেলা উপলক্ষ্যে এক বিশাল বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনসহ অন্যান্য অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন। শোভাযাত্রাটি নগরীর সাহেব বাজার হয়ে রাজশাহী কলেজ মাঠে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, স্কুল-কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ অংশ নেন। রাজশাহীর ঐতিহ্যবাসী ঘোড়ার টমটম শোভাযাত্রার সৌন্দর্য্য বর্ধণ করে।

রাজশাহী কলেজ মাঠে আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত এ উন্নয়ন মেলা চলবে। উন্নয়ন মেলা সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের স্টলে দেশের উন্নয়নের বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। মেলায় প্রায় দুই শতাধিক স্টল বসেছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.