কোন বাধাই ধানের শীষের বিজয় ঠেকাতে করতে পারবে না: মিনু

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার:
সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আজ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর পর্যন্ত ২ নং ওয়ার্ডে গণসংযোগ ও প্রচারণা করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা, সাবেক মেয়র ও সংসদ সদস্য জননেতা মিজানুর রহমান মিনু। তিনি নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজপাড়া থানা বিএনপি কার্যালয় থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। এসময়ে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করার জন্য এই নির্বাচনে বিএনপি, ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট অংশ গ্রহন করেছে। যত বাধাই আসুক কোন ভাবেই বিএনপি জোট নির্বাচন বর্জন করবেনা। সেইসাথে বিএনপি জোটের বিজয় কেউ রোধ করতে পারবেন। এখন তাঁর সংসদীয় আসনসহ দেশব্যাপি বিএনপি’র জোয়ার বইছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সরকারী দলের বাধা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সরকারী দল তাদের ব্যানার, পোস্টার, লিফলেট ছিড়ে ফেলছে ও নির্বাচনী অফিস ভাঙ্গচুর করছে। কিন্তু বিএনপি এখনো ধৈর্য্যরে পরিচয় দিচ্ছে। বিএনপি কোনদিন সহিংস রাজনীতি করেনি, এখনো করবেনা বলে জানান তিনি। যারা এগুলো করছে এবং মদদ দিচ্ছে তারাই জনগনের নিকট হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছে। এতে করে বিএনপি’র কোন ক্ষতি হচ্ছেনা বলে তিনি উল্লেখ করেন। আওয়ামী লীগ বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল বলে। কিন্তু দেশবাসী মানুষ এখন জানছে কারা সন্ত্রাসী দল। জনগণ তাদের ভোটের মাধ্যমে এই অত্যাচার ও নির্বাচনী আচরণ বিধি লংঘনের রায় দেবে বলে জানান তিনি।

মিনু আরো বলেন, তিনি রাজশাহীতে যে উন্নয়ন করছেন জনগণ তা ভুলে যায়নি। জনগণ ভাল করে জানেন বিএনপি সরকারের আমলে রাজশাহীর সকল উন্নয়ন হয়েছে। তাঁর আমলে রাজশাহীতে শহর রক্ষা বাধ, পলিটেকনিক্যাল, টিভি সেন্টার, সিটি বাইপাস সড়ক, ভূবনমোহন পার্কের শহীদ মিনার, পানি শোধনাগার, সুইমিংপুল, মহিলা পলিটেকনিক্যাল, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ৫০০ শয্যা থেকে ১০০০ হাজার শয্যায় রুপান্তরিতসহ নানাবিধ উন্নয়ন করেন। এছাড়াও জনগণ তাঁকে একজন কাছের মানুষ হিসেবে জানেন। তাঁকে সবাই শ্রদ্ধা, সম্মান ও শ্নেহ করেন বলে উল্লেখ করেন তিনি। আগামীতে রাজশাহীকে একটি ইন্ডাষ্ট্রিয়াল জোন, বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থান, বয়স্ক ভাতা, বিধাব ভাতা, দুগ্ধদান মায়েদের সহায়তা বৃদ্ধি, শিক্ষার প্রসারে মহিলা ক্যাডেট, কৃষি বিশ^বিদ্যালয় ও প্রকৌশলী কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হবে বলে জানান তিনি। এছাড়াও ব্যবসা বাণিজ্য বৃদ্ধিতে যুগোপোযোগী পদক্ষেপ গ্রহন কবরেন বলে জানান মিুন।

এদিকে মিনু নেতাকর্মী ও সমর্থকে নিয়ে ২নং ওয়ার্ডের প্রতিটি পাড়া ও মহল্লা যান। এসময়ে চারিদিকে উৎসবে পরিণত হয়। উপস্থিত নেতাকর্মীরা বেগম জিয়ার মুক্তি ও মিজানুর রহমান মিনুকে বিজয়ী করার জন্য ধানের শীষের পক্ষে স্লোগান দিতে থাকেন। শতশত নেতাকর্মী ও সমর্থকদের পদচারনায় সে সময়ে এলাকা মুখরিত হয়ে উঠে। এ সময়ে প্রতিটি মানুষ রাস্তা, বাড়ির ছাদ ও বারান্দায় চলে আসেন, তাঁর সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন এবং মাথায় দিয়ে অনেকেই দোয়া করেন। সেইসাথে তারা ধানের শীষে ভোট দিয়ে মিনুকে বিজয়ী করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

এসময়ে তাঁর সঙ্গে ছিলেন মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি নজরুল হুদা, রাজপাড়া থানা বিএনপি’র সভাপতি শওকত আলী, সাধারণ সম্পাদক আলী হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মুরাদ পারভেজ পিন্টু, ৬নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি গোলাম নবী গোলাপ, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি ওয়াজির নাজির, ২ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি আবু সাইদ টুকু, সাধারণ সম্পাদক মহানগর যুবদলের সাবেক সভাপতি ও বিএনপি নেতা ওয়ালিউল হক রানা, ১নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি শহীদ আলম, সাধারণ সম্পাদক শামীম রেজা, মহানগর যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হাসনাইন হিকোল, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, মহানগর যুবদলের সহ-সভাপতি আবু হেনা মোহাম্মদ শাহীন রান্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন বাবলু, হাািফজুর রহমান আপেল, যুবনেতা রুবেল মহিলাদলের যুগ্ম আহবায়ক নাসিরা খানম মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জমান জনি, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাহিন এবং বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীসহ শত শত সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.