বাগাতিপাড়ায় থানা হাজতে তিন হত্যা মামলার আসামীর মৃত্যু

জাতীয় লীড

নাটোর প্রতিনিধি:
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় তিনটি হত্যা মামলার আসামী মহসিন (৩০) নামের এক ব্যাক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি থানা হাজতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে। মহসিন উপজেলার বেগুনিয়া (চকগোয়াশ) গ্রামের মহির উদ্দিনের ছেলে।

হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাগাতিপাড়া মডেল থানার এসআই প্রশান্ত কুমার জানান, মহসিনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে উপজেলার বিভিন্ন রুটে তিন ভ্যানচালককে হত্যার অভিযোগ রয়েছে। ওই অভিযোগে একাধিকবার তার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। অবশেষে গোপন সংবাদ পেয়ে তার অবস্থান নিশ্চিত হলে সোমবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে তাকে গাজীপুরের শ্রীপুর থানার মাওনা উত্তর পাড়ার আঃ রশীদের বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারের পর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে তাকে বাগাতিপাড়া মডেল থানায় এনে হাজতে রাখা হয়। এরপর দুপুর সাড়ে ১১ টার দিকে হাজতের মধ্যে ভেনটিলেটরের গ্রীলের সাথে মহসিনকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। আসামীকে দেওয়া ব্যবহৃত কম্বল ছিঁড়ে রশি বানিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে।

নিহত মহসিনের বাবা মহির উদ্দিন বলেন, তিনি সকালে তার মেয়ের কাছ থেকে মোবাইল ফোনে ঢাকা থেকে ছেলের গ্রেপ্তারের খবর পেয়েছেন। বিকাল পৌনে ৫টা পর্যন্ত তিনি জানতেন না কোথায় তার ছেলেকে রাখা হয়েছে। একাধিকবার বাড়িতে পুলিশি অভিযানের কারনে গ্রেপ্তার এড়াতে মহসিন প্রায় তিন মাস পূর্বে বাড়ি থেকে ছেলে মোহাম্মদ আলীকে রেখে তৃতীয় স্ত্রী সেলীর সাথে ঢাকায় চলে যান। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ছেলের মৃত্যুর খবর তিনি জানতেন না।

নাটোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আকরামুল হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, খবর পেয়ে তিনি থানায় এসে হাজত খানায় ঝুলন্ত অবস্থায় মহসিনের লাশ দেখেছেন। তবে প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে মনে হয়েছে। ময়না তদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে।
এদিকে নাটোরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল আলমের উপস্থিতিতে মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে রিপোর্ট লেখা (পৌনে ৬টা) পর্যন্ত নাটোর আধুনিক হাসপাতালে ময়না তদন্তে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছিল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.