রাজশাহী থেকে প্রাইভেটকার চোর সিন্ডিকেটের পাঁচ জন আটক

রাজশাহী লীড

প্রাইভেট কার চুরি চক্রের আন্তঃজেলা চোর সিন্ডিকেটের পাঁচ জনকে আটক করেছে রাজশাহী জেলা পুলিশ। আজ রোববার ভোরে ৪টার দিকে টাঙ্গাইলের কালিহাতি থানাধীন এলেঙ্গা ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে একটি এক্সিও চোরাই প্রাইভেটকারসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, ঢাকার সাভারের গেন্ডা এলাকার মামুন, চাঁদপুরের মতলবের নাওজান গ্রামের মৃত আলমাস মিয়ার ছেলে টিটু, পিরোজপুরের আলী থানার গ্রামের মৃত আব্দুল কাশেমের ছেলে শহীদুল ইসলাম, বগুড়ার ফুলবাড়ী থানার রবিউল ইসলামের ছেলে আশরাফুল ইসলাম ও ফরিদপুর জেলার চরডাঙা এলাকার টিটু’র স্ত্রী শারমিন ওরফে রানী।

আজ দুপুরে রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল্লাহ এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, প্রথমে গাড়ি চুরি চক্রের সদস্যরা কোনো ভাল মানের প্রাইভেটকারকে টার্গেট করে। এরপর এক বা একাধিকবার ভাড়ায় বিভিন্ন এলাকায় ঘুরতে গিয়ে চালকের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করে। পরে সুযোগ বুঝে জুসের সঙ্গে পেইস নামে একটি অতিমাত্রার ঘুমের ট্যাবলেট মিশিয়ে খাইয়ে দেয়। সেটা খেয়ে চালক অচেতন হয়ে পড়লে তাদের মধ্যে একজন চালকের আসনে বসে গাড়ি চালাতে থাকেন। তাদের সুবিধামতো জায়গায় অচেতন হওয়া চালককে ফেলে দেয় এবং মোবাইল ফোন নিয়ে গাড়ি চালু করে। যাতে মালিকপক্ষ ফোন দিলে ফোন রিসিভ করে কৌশলে বিভিন্ন কথা বলে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে। তাদের নির্দিষ্টস্থানে পৌঁছার পর ওই ফোনটি ফেলে দেওয়া হয়।

আসামিরা বিভিন্ন এলাকা হলেও ঢাকার সাভার এলাকায় পরস্পর যোগসাজেশ করে এমন চুরির ঘটনা ঘটাতো।

চুরির মামলায় বিকেলে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। এখনও মামলাটির তদন্ত চলছে। এভাবে তারা কতগুলো গাড়ি চুরি করেছে তা বেরিয়ে আসবে বলেও আশাব্যক্ত করেন রাজশাহী পুলিশ সুপার।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.