বাঁশখালীতে অস্ত্রের মুখে ডাকাতি, পুলিশের দাবি চুরি

জাতীয় লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে স্থানীয় লেদু বাবুর্চির ডেকোরেশনের মালামাল, নগদ টাকা ও পাঁচটি গরু ট্রাকে করে নিয়ে গেছে ডাকাতদল। তবে পুলিশ বলছে, এটি ডাকাতি নয়, চুরি।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) দিবাগত রাত ২টার দিকে বাঁশখালী থানার কালীপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী মো. মোস্তফা  বলেন, গতকাল রাতে সাত নম্বর ওয়ার্ডের লেদু বাবুর্চির দোকানের পাশের নুরুল ইসলামের খামারের তিনটি ও রনজিত পালের খামার থেকে দুটি গরু ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছিল ডাকাতদল। এ সময় খামার ও ডেকোরেশনের লোকজন বাধা দিলে ডাকাতদল তাদের মারধর করে ও দোকানের ভেতরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বেঁধে রাখে। তাদের মুখে কচটেপ লাগিয়ে দেয়। এরপর ডেকোরেশনের মালামাল, নগদ টাকা ও পাঁচটি গরু নিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাতদল।

এ বিষয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (আনোয়ারা সার্কেল) হুমায়ুন কবির জাগো নিউজকে বলেন, বিষয়টি আমি এখনো নিশ্চিত নই। খোঁজ নিয়ে জানাচ্ছি।

বাঁশখালী থানার কালীপুর তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক মো. সোলেমান জাগো নিউজকে বলেন, এটি ডাকাতি নয়, চুরি। গরু চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় ডেকোরেশন ও খামারের লোকজন এক চোরকে ধরে ফেলে। এ সময় চোরেরা তাদের (ডেকোরেশন ও খামারের লোকজন) মারধর করে একটি ঘরে আটকিয়ে গরুগুলো নিয়ে যায়। ঘটনাটা হলো চুরি, ডাকাতি নয়।

এর আগে, গত ৬ আগস্ট রাতেও চাম্বল এলাকার বদি আহমদ চৌধুরীর বাড়িতে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনাটিও পুলিশ চুরি বলে দাবি করে আসছে।

স্ব.বা/রু

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.