হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় আবুল হায়াত

বিনোদন

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় ফিরেছেন খ্যাতিমান অভিনেতা আবুল হায়াত। তবে এখনও তিনি করোনামুক্ত কি না তা জানা যায়নি। চিকিৎসকের পরামর্শেই তিনি বাসায় ফিরেছেন।

গত ৩১ মার্চ আবুল হায়াতের করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। এরপর তাকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হার্টের পূর্ব জটিলতা ও বয়সের কারণে বাড়তি সতর্কতার জন্য তাকে সিসিইউতে রাখা হয়েছিল। পরে কেবিনে নেওয়া হয়। এরপর তাকে প্লাজমা দেওয়া হয়। এখন তিনি অনেকটা সুস্থ, তাই বাসায় ফিরেছেন। চিকিৎসকের পরামর্শে বাসাতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।

নিজের বর্তমান অবস্থা নিয়ে এই অভিনেতা বলেন, ‘আমার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে অনেকটা ভালো। তবে এখনো করোনার দ্বিতীয় রিপোর্ট হাতে আসেনি। কিন্তু অন্য কোনো জটিলতা না থাকায় চিকিৎসকের পরামর্শে বাসা থেকে চিকিৎসা নিচ্ছি। প্রয়োজনীয় ওষুধ দিয়ে দিয়েছে। বাসায় আইসোলেশনে আছি। সবার কাছে দোয়া চাইছি।’

করোনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘দেশের করোনা-পরিস্থিতি বেড়েই চলছে। যেভাবে ছড়াচ্ছে আর আমরা যেভাবে হেসে-খেলে রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছি, পাত্তা দিচ্ছি না এটা খুবই দুঃখজনক। আমাদের সাবধান হতে হবে, মাস্ক পরতে হবে। কিন্তু আমরা অনেকে কিছুই মানছি না।’

৭৬ বছর বয়সী অভিনেতা আবুল হায়াত ১৯৬৯ সাল থেকে টিভি নাটকে অভিনয় করছেন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অসংখ্য নাটকের পাশাপাশি ‘আগুনের পরশমণি’, ‘জয়যাত্রা’, ‘গহীনে শব্দ’, ‘অজ্ঞাতনামা’সহ বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ২০০৭ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন আবুল হায়াত। গত ২৬ ডিসেম্বর আবুল হায়াত অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘স্ফুলিঙ্গ’ মুক্তি পায়। সিনেমাটি পরিচালনা করেন তার জামাতা, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নির্মাতা তৌকীর আহমেদ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *