আমাকে ফাঁসানো হয়েছে: অভিনেতা ফারহান

বিনোদন

স্বদেশবাণী ডেস্ক: এক তরুণীকে অত্যাচারের অভিযোগ ছোট পর্দার সময়ের জনপ্রিয় অভিনেতা মুশফিক রহমান ফারহানের বিরুদ্ধে।

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন নিজেকে ফারহানের এক সময়ের ‘প্রেমিকা’ দাবী করা ওই তরুণী।

শুক্রবার সকালে জিডির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন শেরেবাংলা নগর থানার উপ-পরিদর্শক সাহেরা খানম।

ওই জিডির বিষয়ে অভিনেতা ফারহানের দাবী, তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

জিডিতে ওই তরুণীর অভিযোগ, ফারহানের সঙ্গে তার ৫ বছরের প্রেম ছিল। সম্পর্ক থাকাকালীন তাকে বিভিন্নভাবে অত্যাচার করতেন এই অভিনেতা। এতে অতিষ্ট হয়ে এক সময় ফারহানের কাছ থেকে আলাদা হয়ে যান তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ফারহান। গত ২৭ মে তার পুরো পরিবারকে ‘ধ্বংস’ করার হুমকি দেন ফারহান।

তরুণীর আরো অভিযোগ, নিজেকে রক্ষা করতে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে ফারহান। অর্থ আত্মসাতের বানোয়াট অভিযোগও আনছেন তিনি।

এক গণমাধ্যমকে তরুণী বলেন, ‘আমি নাকি ফারহানের কাছ থেকে টাকা নিয়েছি। এমনটা সবাইকে বলে বেড়াচ্ছে সে। সে আমার নামে মিথ্যা রটিয়ে নিজেকে রক্ষা করতে চাইছে।’

এদিকে ওই তরুণীর সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিনেতা ফারহান। তবে অভিযোগকারিনী তার সাবেক প্রেমিকা কি না, সে বিষয়টি খোলাশা করেননি এই অভিনেতা।

এ বিষয়ে এক গণমাধ্যমকে শুক্রবার ফারহান বলেন, ‌‌‘এখন এই বিষয়ে তেমন কিছু বলতে চাই না। শনিবার এই প্রসঙ্গে জানাব। তবে এটুকু বলতে পারি, আমাকে ফাঁসানো হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, রেডিও জকি হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন জনপ্রিয়তা পান মুশফিক রহমান ফারহান। এর কয়েকদিন পর ছোট পর্দায় অভিনয় শুরু করেন। ২০১৬ সালের নির্মাতা মাবরুর রশিদ বান্নাহর ‘একটি তিন মাসের গল্প’ নাটকের মাধ্যমে অভিনয়ে আসেন ফারহান। নাটকটি দিয়ে ব্যাপক পরিচিতি পান। এরপর আরজের চাকরি ছেড়ে অভিনয়টাকেই পেশা হিসেবে নেন। এবার ঈদেও তার একাধিক নাটক প্রচারিত হয়েছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *