হিজাব নিয়ে সমালোচনার মোক্ষম জবাব দিলেন অভিনেত্রী সানা খান

বিনোদন

স্বদেশবাণী ডেস্ক: বলিউড অভিনেত্রী সানা খান ইসলামের টানে তার ১৫ বছরের সুদীর্ঘ ক্যারিয়ারের ইতি টানেন গত বছরের অক্টোবরে। এর দেড় মাস পর ভারতের গুজরাটের সুরাটের বাসিন্দা মাওলানা মুফতি আনাস সাইয়িদকে জীবনসঙ্গী করেন।

এরপর থেকেই ইসলামের নিয়ম কানুন মেনে চলার পাশাপাশি পর্দার বিধানও পালন করছেন এ অভিনেত্রী।

তবে হিজাব পরার কারণে মাঝে মধ্যেই ইসলামবিদ্বেষীদের সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে। অবশ্য তাতে তিনি কান দেন না। বরং সমালোচনাকারীদের সুন্দরভাবে জবাব দিয়ে দেন।

সম্প্রতি হিজাব পরে নিজের একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন সানা খান। সেই ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন, ‘লোককে এত ভয় পেয়ে চলো কেন? তুমি কি এই আয়াত পড়নি? ‘আল্লা জিসে চহে ইজ্জত দেতে হে, অর আল্লা জিসে চহে জিল্লাত দেতে হে…’। অর্থাৎ, আল্লাহ যাকে ইচ্ছা সম্মান দান করেন, আর যাকে ইচ্ছা অপমান করেন (সুরা আল ইমরান: ২৬)।

সানা আরও লেখেন, কাভি ইজ্জতো মে জিল্লত ছুপি হোতি হ্যায়, তো কভি জিল্লতো মে ইজ্জত!’ অর্থাৎ, কখনও কখনও অপমানের মধ্যে সম্মান লুকিয়ে থাকে, আবার সম্মানের মধ্যে অপমান।

‘তাই আমাদের চিন্তা করতে হবে ও বুঝতে হবে কোনটি আসল পথ। আর আমি কোন পথের অংশীদার হব।’

সানার হিজাব পরার এ ছবির প্রশংসা করে অনেকেই তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। হিজাবে একজন নারীকে যে এত মার্জিত ও শালীন দেখায়, তার উদাহরণ সানা খান, মনে করেছেন অনেকেই।

তবে একজন নেটিজেন মন্তব্য করেন, ‘এত পড়াশোনা করে কী লাভ যদি হিজাব পরে বাকি জীবন কাটাতে হয়?’ জবাবে অভিনেত্রী লেখেন, ‘ভাই আমার, যদি পর্দার পেছনে থেকে নিজের ব্যবসা চালিয়ে নিতে পারি সফলভাবে, এত ভালো শ্বশুরবাড়ি পাই, এত ভালো স্বামী পাই, তাহলে আর কী চাই! আর আল্লাহ আমাকে রক্ষা করছেন সব দিক থেকে। আলহামদুলিল্লাহ!’

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *