সাংবাদিকদের ওপর কড়াকড়ি শিথিল করছে চীন-যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক

স্বদেশবাণী ডেস্ক: এক দেশ অপর দেশের সাংবাদিকদের ওপর ভ্রমণ ও ভিসায় কড়াকড়ি শিথিল করতে রাজি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও চীন। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিং পিংয়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ভার্চুয়াল বৈঠকের পর দু’দেশের মধ্যে এই সমঝোতার আশ্বাস পাওয়া যায়।

এতে এই দুই দেশের সাংবাদিকরা আরও স্বাধীনভাবে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনে যাতায়াত করতে পারবেন।

দুই দেশের সরকার সাংবাদিকদের ভিসার বৈধতার মেয়াদ তিন মাস থেকে এক বছর পর্যন্ত বাড়াবেও সিদ্ধান্ত হয়েছে।

 

তাছাড়া, দুই দেশই সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে দেশত্যাগ এবং ফিরে আসার অনুমতি দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে, যেটা আগে সম্ভব ছিল না। এর আগে কঠোর বিধিনিষেধের করণে এই দুই দেশের সাংবাদিকরা পরস্পরের ভূখণ্ডে অবাধে যাতায়াত করতে পারতেন না।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেছেন, তারা নতুন উদ্যোগকে সম্পর্কের অগ্রগতি হিসেবেই স্বাগত জানাচ্ছেন। তবে একে প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবেও দেখছেন তারা।

গত বছর ফেব্রুয়ারিতে চীনের সাংবাদিকদের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছিল যুক্তরাষ্ট্র।

পাঁচটি চীনা সংবাদমাধ্যমকে তখন বলা হয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্রে যে কোনও সম্পত্তি কিনতে তাদের অনুমোদন নেওয়ার দরকার হবে। সেইসঙ্গে তাদের সব কর্মীর তালিকা যুক্তরাষ্ট্র সরকারের কাছে জমাও দিতে হবে।

এমন পদক্ষেপকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নিপীড়ন’ বলে উল্লেখ করেছিল চীন। এর এক মাস পর যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক টাইমস,ওয়াশিংটন পোস্ট এবং ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের মতো বড় বড় সংবাদমাধ্যমের ১৩ সাংবাদিককে বহিষ্কার করেছিল চীন।

তবে বহিষ্কার হওয়া দুই দেশের সাংবাদিকরা এখন নতুন সমঝোতা চুক্তির আওতায় আগের জায়গায় ফিরতে পারবেন কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

বাণিজ্য,সাইবার-নিরাপত্তা, জলবায়ু পরিবর্তন ও করোনাভাইরাস মহামারীসহ বিভিন্ন বিষয়ে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে বাড়তে থাকা উত্তেজনা কমাতে এই সমঝোতা সহায়ক হবে বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

সূত্র: বিবিসি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *