রাজশাহীতে জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্মবার্ষিকী পালিত

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৮৩তম জন্ম দিন উপলক্ষে আজ শনিবার দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মহনগর বিএনপি’র আয়োজনে নগরীর মালোপাড়াস্থ বিএনপি কার্যালয়ে দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন।

প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, মহানগর বিএনপি’র সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।

প্রধান বক্তা ছিলেন রুয়েটের শিক্ষক প্রফেসর আকতার হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সহিদুন্নাহার কাজী হেনা, মহানগর বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম সরকার ও শাফিকুল ইসলাম শাফিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিউল হক রানা।

অন্যদের মধ্যে মতিহার থানা বিএনপি’র সভাপতি আনসার আলী, মহানগর বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বজলুল হক মিন্টু, মতিহার থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক ডিকেন, রাজপাড়া থানা বিএনপি’র সাংগঠনিক মুরাদ পারভেজ পিন্টু, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি ওয়াজির, ৫নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি বজলুর রহমান কচি, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাকির হোসেন রিমন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিউজ্জামান পরাগ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকবর আলী জ্যাকি, জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি কুসুম, মহিলা নেত্রী রোজি ও রিতাসহ বিএনপি’ অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনায় বক্তারা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের বর্নাঢ্য জীবন সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তারা বলেন জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা ঘোষনা করায় বাংলাদেশ নামে একটি দেশ হয়েছে। সেইসাথে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠাসহ দেশের উন্নয়নের তিনি ১৯দফা কর্মসূচী ঘোষনা করেন। তার আলোকে তিনি খাল খনন করেন এবং দেশে কৃষি বিপ্লব ঘটান। এছাড়াও তিনি নানাবিধ প্রকল্প বাস্তবায়ন করে দেশের উন্নয়নে মুখ্য ভূমিকা রাখেন।

তারা আরো বলেন, দেশ এখন চরম ক্রান্তিকাল পার করছে। দেশের গণতন্ত্র বর্তমানের বিপন্ন। গণতন্ত্র উদ্ধার এবং দেশের জনগনের স্বাধীনতা রক্ষাতে আগামীতে বিএনপি, ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যপ্রন্ট কাঠোর আন্দোলন করবে। এই আন্দোলনে সকলকে শরীক হওয়ার আহবান জানান তারা। পরে জিয়াউর রহমানসহ তাঁর সকল সদস্য এবং সব মুসলিমের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন।

উল্লেখ্য শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ১৯৩৬ সালের ১৯ জানুয়ারি বগুড়া জেলার নির্জন পল্লী এলাকা বাগমারী গ্রামের জন্ম গ্রহন করেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published.