বাঘার ইউএনও’র মুঠোফোন নম্বর ক্লোন করে আবারও চাঁদা দাবির অভিযোগ

রাজশাহী লীড

বাঘা প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাঘায় উপজেলা নির্বাহি অফিসারের (ইউএনও) সরকারি মুঠোফোন থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষা অফিসারের নিকট চাঁদা দাবির অভিযোগ উঠেছে। নারায়নপুর,মনিগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা সহকারি শিক্ষা অফিসে ল্যাপ্টপ দেয়ার কথা বলে চাঁদা দাবি করা হয়েছে। তবে ফোন নম্বরটি ক্লোন করে চাঁদা দাবি করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন ইউএনও। এমন দাবি করে বৃহস্পতিবার (১৪-০২-১৯) সতর্কমূলক জরুরি বিজ্ঞপ্তি শিরোনামে ‘উপজেলা প্রশাসন’ বাঘা, রাজশাহীর ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছেন ইউএনও। এতে সরকারি ব্যবহৃত ফোন নম্বরটি ক্লোন করে কে বা কারা ল্যাপ্টপ দেয়ার কথা বলে ওইসব প্রতিষ্ঠানের নিকট চাঁদা দাবি করেছে।

নারায়নপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যাললের প্রধান শিক্ষক পাপিয়া সুলতানা জানান, আপনার প্রতিষ্টানে ল্যাপ্টপ বরাদ্দ হয়েছে। কিছু টাকার দরকার। বিষযটি নিয়ে ইউএনও স্যারকে ফোন দিলে তিনি কোন ফোন করেনি বলে জানান।

জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৮ আগষ্ট ইউএনওর মুঠোফোন নম্বর ক্লোন করে আড়ানী ইউনিয়ন , গড়গড়ি ইউনিয়ন ও বাউসা ইউনিয়নের সচিবের নিকট চাঁদা দাবি করা হয়েছিল।

বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহিন রেজা বলেন, তারা টাকা চাওয়ার বিষয়টি জানতে চাওয়ার পর বিষয়টি জেনে ফেসবুকে সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছি। এ বিষয়ে থানায় সাধারণ ডাইরী করা হবে বলে তিনি জানান। বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহসীন আলী বলেন, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Spread the love
  • 43
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    43
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.