মহানগরীর ১৪০০ খতিব, ইমাম, আলেম ও মুয়াজ্জিমকে ঈদ শুভেচ্ছা ভাতা ও উপহার দিলেন রাসিক মেয়র লিটন

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টারঃ পবিত্র ঈদুল আযহা-২০২১ উপলক্ষে শহীদ কামারুজ্জামান ও জাহানারা জামান ফাউন্ডেশনের আয়োজনে মহানগরীর সকল মসজিদের ১৪০০ এর অধিক খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেম ও হাফেজদের ঈদ শুভেচ্ছা ভাতা ও উপহার প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। বুধবার দুপুরে নগরভবনের সিটি হল সভাকক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কয়েকজনের হাতে ঈদ শুভেচ্ছা ভাতা ও উপহার তুলে দিয়ে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মেয়র। ১৪০০ এর অধিক খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেম ও হাফেজদের প্রত্যেককে ১৫০০ করে টাকা ও খাদ্য সামগ্রীর ১টি করে প্যাকেট প্রদান করা হয়। প্রতিটি প্যাকেটে রয়েছে ১০ কেজি চাল ও ১ কেজি ডাল।

অনুষ্ঠানে রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুরের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উলামায়ে কেরাম ও আলেমদের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছেন। রাজশাহীতে উলামায়ে কেরাম ও আলেমদের কল্যানে উলামা কল্যান পরিষদ গঠন করা হয়েছে। বিগত বছরের ন্যায় এবারো আমার ব্যক্তিগত উদ্যোগে শহীদ কামারুজ্জামান ও জাহানারা জামান ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খাদেমদের ঈদ শুভেচ্ছা ভাতা ও উপহার প্রদান করা হচ্ছে। আগামীতেও এভাবে যাতে আলেম ও উলামাদের কল্যানে কাজ করে যেতে পারি সেই দোয়া করবেন। আমরা সবাই একমত হয়ে দেশের কল্যান, রাজশাহীর কল্যানে কাজ করে যেতে চাই।

মেয়র আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারণে এক সংকটময় পরিস্থিতি পার করছে বিশ^। করোনার এই সময়ে পবিত্র ঈদুল আযহা সতর্কতার সাথে উদযাপন করতে হবে। সবাইকে সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। মসজিদের ইমামরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে সচেতনতা সৃষ্টিতে কাজ করে যাচ্ছেন। মানুষকে যথাযথভাবে স্বাস্থবিধি মেনে চলতে মসজিদের ইমাদের বারবার আহ্বানের জানানো কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে।

মেয়র বলেন, করোনা মহামামির মধ্যেও রাজশাহীর উন্নয়ন কাজ চলমান আছে। রাজশাহীর উন্নয়নে অনেক কাজ বাকি আছে, সেগুলো করতে চাই। রাজশাহীর জন্য বেশি প্রয়োজন কর্মসংস্থান। কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে কাজ করে যাচ্ছি। করোনার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আরো তৎপরতা বাড়ানো হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উলামা কল্যান পরিষদের উপদেষ্টা জামিয়া উসমানিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা জামাল উদ্দিন ও উলামা কল্যান পরিষদের উপদেষ্টা রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক মাওলানা ড. বারকুল্লাহ বিন দুরুল হুদা। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন শাহ মখদুম জামিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি মাওলানা শাহাদত আলী। অনুষ্ঠানমঞ্চে উপস্থিত ছিলেন উলামা কল্যান পরিষদের সভাপতি মাওলানা মোঃ আব্দুল গণি, সাধারণ সম্পাদক মুফতি মোঃ ওমর ফারুক, সাবেক সভাপতি মাওলানা আইয়ুব আলী প্রমুখ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *