জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে দেশসেরা রাসিক, মেয়র লিটনকে সম্মাননা স্মারক ও সনদ প্রদান

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টারঃ জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধনে দেশের ১২টি সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। এ উপলক্ষ্যে প্রাপ্ত সম্মাননা স্মারক ও সনদপত্র বৃহস্পতিবার দুপুরে নগর ভবনে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের হাতে তুলে দেন সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ। গৌরবের অর্জনের জন্য সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ ও স্বাস্থ্য বিভাগ সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন রাসিক মেয়র।

এ ব্যাপারে রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন স্বাস্থ্য বিভাগ ইপিআই কার্যক্রমে পর পর ১০ বার প্রথম হয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সুনাম অর্জন করেছে। অনুরূপভাবে জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন কার্যক্রমে এ বছর রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন দেশের ১২টি সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। এ জন্য এ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত প্রত্যেক ওয়ার্ডের কাউন্সিলর, ওয়ার্ড সচিব, ডাটা এন্ট্রি অপারেটর, স্বাস্থ্য সহকারী, এবং স্বাস্থ্য বিভাগকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

মেয়র আরো বলেন, জন্ম নিবন্ধন শিশুর অধিকার। সুন্দর জীবন বিকাশের স্বার্থেই শিশুর প্রতি ব্যক্তি, পরিবার ও রাষ্ট্র প্রত্যেকেই যত্নশীল। শিশুর পরিচয় ও অধিকার রক্ষায় তার বয়স নির্ধারণ জরুরী। শিশুর পরিচয়, বয়স, কখন কোথায় সে জন্মগ্রহণ করেছে, কে তার পিতা-মাতা ইত্যাদি প্রশ্ন আইনগতভাবে জিজ্ঞাসা ও সমাধানের জন্য প্রয়োজন জন্ম নিবন্ধন সনদ। জন্ম নিবন্ধনের গুরুত্ব বুঝেই বাংলাদেশ সরকার ২০০৬ সালে অনলাইনের মাধ্যমে জন্ম নিবন্ধন কার্যক্রম চালু করে যা চলমান। শিশুর জন্ম নিবন্ধনের সাথে সাথেই ঐ শিশুকে রাষ্ট্র কর্তৃক প্রদত্ত সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা ভোগ করার আইনগত অধিকার বর্জন করবে।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *