রাজশাহীতে শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় শহীদ কামারুজ্জামান সহ জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ

রাজশাহী লীড

স্টাফ রিপোর্টার: ৩রা নভেম্বর জেল হত্যা দিবসে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গভীর শোক ও বিনম্র শ্রদ্ধায় রাজশাহীতে শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানসহ জাতীয় চার নেতাকে স্মরণ করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে নগরীতে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবর্ক অর্পণ, জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, কোরআন খতম, শোক র‌্যালি, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, রক্তদান কর্মসূচি, খাবার বিতরণসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে নগর ভবন থেকে বিশাল শোক র‌্যালি বের করা হয়। শোক র‌্যালি শেষে কাদিরগঞ্জে শহীদ কামারুজ্জামানের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। সেখানে শহীদ কামারুজ্জামানের সুযোগ্যপুত্র রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন, রাসিকের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ পৃথকভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। রাসিকের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, কালো ব্যাজ ধারণ, কোরআন খতম, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল, রক্তদান কর্মসূচি, খাবার বিতরণ, মসজিদে মসজিদে দোয়া ও অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনা, প্রামান্যচিত্র প্রদর্শন, শোক সম্বলিত ব্যানার প্রদর্শন, কালো পতাকা উত্তোলন, প্রতিটি ওয়ার্ডে মাইকে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতসহ ভাষণ প্রচার করা হয়।

সকাল সাড়ে ১০টায় মহানগর আওয়ামী লীগের আয়োজনে কুমারপাড়া দলীয় কার্যালয়ে স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ও আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এরপর দলীয় কার্যালয় থেকে বের করা বিশাল শোক র‌্যালি বিভিন্ন সড়ক ঘুরে কাদিরগঞ্জে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে শহীদ কামারুজ্জামানের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ, দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন শহীদ কামারুজ্জামান পরিবারের সদস্য নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপকমিটি ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের প্রভাষক মো. রেজভী আহমেদ ভূঁইয়া। এ সময় নগর আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে আরো বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বেগম আখতার জাহান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল কুমার সরকার। সভার সঞ্চালনা করেন রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন রাবির ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মাওলানা মুহাঃ বারকুল্লাহ বিন দুরুল হুদা।
সভায় রাসিক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারে সদস্যদের এবং ৩রা নভেম্বর জাতীয় চার নেতাকে বিশেষ একটি উদ্দেশ্য নিয়েই স্বাধীনতাবিরোধী চক্ররা নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর ঘাতকরা মনে করেছিল, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ চার সহযোগী জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা না হলে খুনিদের হীন উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন হবে না, দেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মুছে ফেলা যাবে না। দেশ থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশের স্বাধীনতাকে মুছে ফেলতে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাকে নির্মমভাবে হত্যা করে দেশের স্বাধীনতা বিরোধী ঘাতকরা। তবে ঘাতকদের সেই অপচেষ্টা বাস্তবায়ন হয়নি। দিন যত যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতি মানুষের ভালোভাসা ততোই বাড়ছে।
মেয়র আরো বলেন, নানা চড়াই উৎরায় সংগ্রামের পর বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশের ক্ষমতায় আসেন। ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অনন্য উচ্চতায় পৌছে গেছে। তবে এখনো দেশে স্বাধীনতা বিরোধীদের চক্রান্ত ষড়যন্ত্র চলমান আছে। আমাদের সবাইকে বিশেষ করে তরুণ প্রজন্মকে স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের বিরুদ্ধে সজাগ ও সচেতন থাকতে হবে।
এদিকে জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে সকাল থেকে শহীদ এ.এইচ.এম কামারুজ্জামানের কবরে শ্রদ্ধা জানাতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসনের কর্মকর্তা, সরকারি কর্মকর্তা, শিক্ষক-শির্ক্ষাথীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের ঢল নামে।

শহীদ কামারুজ্জামানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বিএমডিএ চেয়ারম্যান আখতার জাহান, রাজশাহী-৩ আসনের সাংসদ আয়েন উদ্দিন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সকল থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শ্রমিক লীগ, যুব মহিলা লীগ, তাঁতী লীগ, জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক নেতৃবৃন্দ, রাজশাহী মহানগর, রাবি ও রুয়েট ও রামেক শাখা ছাত্রলীগ, সাবেক ছাত্রলীগ ফোরাম, বঙ্গবন্ধু প্রকৌশল পরিষদ, জেলা ক্রীড়া সংস্থা, মহানগর ওয়াকার্স পার্টি, রেলওয়ে শ্রমিক লীগ, মহানগর ও জেলা জাসদ, পুঠিয়া ও চারঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান, চারঘাট পৌরসভা মেয়র, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়, রাজশাহী কলেজ, শিক্ষাবোর্ড মডেল স্কুল এন্ড কলেজ, শহীদ কামারুজ্জামান ডিগ্রি কলেজ, রাবি ও রুয়েটের উপাচার্য ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ, রাজশাহী মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, বিএমএ ও স্বাচিপ নেতৃবৃন্দ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ, বাংলাদেশ শিক্ষক কর্মচারী সমিতি ফেডারেশন, অগ্রণী ব্যাংক ও সোনালী ব্যাংক, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, সেক্টর কমান্ডার ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ-৭১, বিএনসিসি, রাজশাহী দলিল লেখক সমিতি, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু ও কিশোর পরিষদ, বঙ্গবন্ধু মেডিকেল টেকনোলজিস্ট পরিষদ, ইলা মিত্র শিল্পী সংঘ, রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগ, আওয়ামী মটর চালক লীগ, রাজশাহী জেলা সহ বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান।

এরআগে সকালে শহীদ কামারুজ্জামানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবীর, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ আব্দুল বাতেন মহানগর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক, জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল, জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য), সিভিল সার্জন, রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, রাজশাহী ওয়াসা, রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড, রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক, এডভোকেট আব্দুস সালাম টেনিস কমপ্লেক্স, বরেন্দ্র রির্সাচ মিউজিয়াম, সহ বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি অফিসের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *