বাগমারায় সাংবাদিকদের অশ্লিল ভাষায় গালি দিয়ে হত্যার হুমকি

রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীর বাগমারায় উপজেলার রক্ষিতপাড়া গ্রামে সাংবাদিকদের অকাণে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করে হামলা করার চেষ্ঠা চালায় দুলাল নামের এক দুর্বৃত্ত। বুধবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে রক্ষিতপাড়া গ্রামে এ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় গালিগালাজের একটি ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে।

জানা যায়, দুর্বৃত্ত দুলাল বাগমারার উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের রক্ষিতপাড়া গ্রামের মৃত ইসরাইলের ছেলে দুলাল হোসেন(৪০)। সে মোহনপুর উপজেলার ধামিন নওগাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ে ল্যাব সহকারি পদে চাকুরিরত। বর্তমানে সে অত্র ইউনিয়নের পালোপাড়া গ্রামে বসবাস করে

সরেজমিনে, আউচপাড়া ইউনিয়নের পালোপাড়া গ্রামে পুকুর খনন করাকে কেন্দ্র করে দ্বন্দ্বের খবরে স্থানীয় সংবাদকর্মীরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পথিমধ্যে ঘটনাস্থল থেকে ফিরছিলেন বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক সুফিয়ান ও তার টিম। আর ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন আউচপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ডিএম শফিকুল ইসলাম শাফি। সাংবাদিকদের উপস্থিতির পরেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন তিনি। চেয়ারম্যান ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সাথেসাথেই দুলাল নামে এক দুর্বৃত্ত উপস্থিত সাংবাদিকদের অকারণে বেফাঁস ভাষায় গালিগালাজ ও মেরে ফেলার হুকমি দিতে থাকে। একপর্যায়ে সাংবাদিকরা প্রতিবাদ করলে সে হোন্ডা টেনে চিল্লাফাল্লা করতে করতে চলে যায়।
পরে স্থানীয় জনতা পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার পর সাংবাদিকরা ঘটনাস্থল থেকে ইউনিয়ন পরিষদে চলে যান। সেখানে গিয়েও সাংবাদিকদের দেখে চেয়্যারমান সাফির কাছ থেকে দুলাল হোসেন জোর করে (এক্সেভেটর)ভ্যেকুর চাবি নিয়ে অবৈধভাবে পুকুর খনন চালিয়ে যাবে বলে অসাভাবিক আচরণ করতে থাকে। তাতে সে জেল খাটতেও রাজি আছে এমন কথা বলতে থাকে। অবশেষে সাংবাদিকদের মারতে উদ্যত হয়। জানা গেছে, এলাকায় দুলাল একজন সুদের ব্যাবসায়ী ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী।

ধামিন নওগাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ডিএম জিয়াউর রহমান এঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। আউচপাড়া ইউপি চেয়্যারমান সাফিকুল ইসলাম সাফি বলেন, সাংবাদিকদের তুলে অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ ও হামলার হুমকি এটি নিতান্তই ন্যাক্কারজনক ঘটনা। যেহেতু এটার সত্যতা নিশ্চিত করতে ভিডিও আছে, সেহেতু এই দুলারের উপযুক্ত শাস্তি হওয়া দরকার আছে।

অবগত করা হলে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাক আহমেদ সাংবাদিকদের লিখিত অভিযোগের পরামর্শ দেন।

এবিষয়ে বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক সুফিয়ান বলেন, গালিগালাজের ভিডিও ফুটেজ পেয়েছি। তিনিও থানায় অভিযোগের পরামর্শ দেন।

এঘটনার বাগমারা থানায় লিখিত অভিযোগের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান সাংবাদিকরা।

 

স্ব:বা/না

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *