নতুন নামে জামায়াতে ইসলামী রাজনীতি শুরু করতে পারবে কিনা বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল

বিশেষ সংবাদ লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: মুক্তিযুদ্ধকালীন ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়া এবং নতুন নামে দল গঠন নিয়ে জামায়াতে ইসলামীতে চলছে অস্থিরতা। এরই মধ্যে শুক্রবার দলটির সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক পদত্যাগ করেছেন।

তবে নতুন নামে জামায়াতে ইসলামী রাজনীতি শুরু করতে পারবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

রোববার সুপ্রিমকোর্টে নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘হিটলার নেই। কিন্তু হিটলারের ভাবাদর্শ নিয়ে যদি কোনও রাজনীতি শুরু হয়, সেটা কি বুঝতে জার্মান পিপলদের অসুবিধা হবে? জামায়াতের ক্ষেত্রেও একইভাবে বলব, কেউ যদি জামায়াতি ভাবধারায় রাজনীতি শুরু করতে চায় সেটা কি সাধারণ জনগণ বুঝবে না?’

এ সময় তিনি রাজনৈতিক দল হিসেবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন সেই বক্তব্যকে যথার্থ বলে মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল করে দেওয়া হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিল দ্রুত শুনানিতে তোলার উদ্যোগ নেয়া হবে।

মাহবুবে আলম বলেন, ‘রাজনৈতিক দল হিসেবে জামায়াতের নিবন্ধন হাইকোর্টের আদেশে বাতিল হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে আপিল বিভাগে মামলা বিচারাধীন আছে।’

মাহবুবে আলম আরও বলেন, যেকোনও রাজনৈতিক দলের রাজনীতি করার প্রধান উদ্দেশ্য কি ক্ষমতায় যাওয়া? ক্ষমতায় যেতে হলে নির্বাচেন করতে হবে। যদি তার (রাজনৈতিক দলের) লাইসেন্সই না থাকে তাহলে সেটি কীভাবে নির্বাচন করবে? আর যারা নাকি নির্বাচন কমিশনের অনুমোদন ছাড়া রাজনীতি করতে চায়, সেটা তো আন্ডারগ্রাউন্ড রাজনীতি।

তিনি বলেন, সেসব রাজনীতি তো আমাদের দেশের সাধারণ জনগণ গ্রহণ করে না। আর তাদের রাজনীতি করতে দেওয়ার জন্য সুযোগ-সুবিধা দিতে রাষ্ট্রেরও বাধ্যবাধকতা নেই। কাজেই বাস্তবতা হলো, রাজনীতি করতে হলে ইলেকশন কমিশন থেকে একটি অনুমতি থাকতে হবে, লাইসেন্স থাকতে হবে।

মাহবুবে আলম বলেন, ‘সেই লাইসেন্সটাই বাতিলের জন্য মামলাটি আপিল বিভাগে বিচারাধীন আছে। আমরা আশা করি, অতি দ্রুত এর শুনানির ব্যবস্থা নিতে পারব।’

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.