শ্রীমঙ্গলে খণ্ডিত পায়ের পর পাওয়া গেলো দুই হাত

জাতীয় লীড

স্বদেশবাণী ডেস্ক:  মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলের মীর্জাপুরে এক কৃষকের কচুরমুখি ক্ষেত থেকে পায়ের দুটি অংশ উদ্ধারের পর এবার পৃথক পৃথক বাঁশঝাড়ে পাওয়া গেছে দুই হাত। ঘটনাস্থল ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

সোমবার (২১ জুন) সকালে এ খবর নিশ্চিত করেন মীর্জাপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই কাশি চক্রবর্তী। এদিকে খণ্ডিত পা ও হাত দেখে অনেকে ধারণা করছেন এটি কোন নারীর হতে পারে।

তিনি জানান, পায়ের অংশ দুটি পঁচে দুর্গন্ধ বের হচ্ছে। পায়ের কমর থেকে হাঁঠু পর্যন্ত এক টুকরো এবং হাঁঠু থেকে পায়ের নিচের অংশের আরেক টুকরো পাওয়া যায়। এর পাশে একটি বাজার করার ছোট প্লাস্টিকের থলে রয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে প্লাস্টিকের ওই থলেতে পাটি ছিলো। শিয়াল বা কুকুর এটি টেনে বের করেছে। ক্ষেতের মধ্যে ওই থলে টেনে নেয়ার দাগ রয়েছে বলে জানান তিনি।

ফাঁড়ি ইনচার্জ আরও জানান, বডির অন্য অংশ উদ্ধারে চারদিকে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত শ্রীমঙ্গল উপজেলায় কোন মানুষ নিখোঁজ হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। বিষয়টি অধিকতর তদন্তের জন্য ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

পরে, ওই নারীর কাটা দেহের বাকী অংশ খোঁজুতে গিয়ে প্রায় আধ কিলোমিটার দূরে একই গ্রামের দুর্গেশ দত্তের বাঁশঝাড়ে একটি হাত ও গৌরা দত্তের বাঁশঝাড়ে আরও একটি হাত পাওয়া যায়।

দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ সার্কেলর সিনিয়র এএসপি শহীদুল হক। এ সময় শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুস ছালিক ও পিবিআই’র একটি টিম উপস্থিত ছিল।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *