মোহাম্মদপুর ১২০ কোটি টাকায় নির্মাণ হবে ৪৩০টি ফ্ল্যাট

জাতীয় লীড

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: রাজধানীর মোহাম্মদপুরে সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য চারটি ভবনে ৪৩০টি আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণের কাজ পেলো দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস লিমিটেড। এতে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ১২০ কোটি ৩৮ লাখ ২৩ হাজার ৫৭১ টাকা।

বুধবার (২২ জুন) বিকেলে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, আজকে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৫তম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২০তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য দুটি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হলে একটির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। আর ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য ১৫টি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব বলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক ‘ঢাকাস্থ মোহাম্মদপুর হাউজিং এস্টেটের আসাদ এভিনিউতে (গৃহায়ন কনকচাঁপা) ও সাত মসজিদ রোড (গৃহায়ন দোলনচাঁপা) ৪৩০টি আবাসিক ফ্ল্যাট’ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় ভবন নম্বর ১,২,৩,৪ নির্মাণের পূর্ত কাজ দ্য ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড আর্কিটেক্টস লিমিটেডের কাছ থেকে ১২০ কোটি ৩৮ লাখ ২৩ হাজার ৫৭১ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ’ প্রকল্পের গ্রিন সিটি আবাসিক কমপ্লেক্স-এ প্যাকেজ নং-২৪ এর পূর্ত কাজ যৌথভাবে স্বজন কন্সট্রাকশন লিমিটেড (এসসিএল) এবং মায়সা কন্সট্রাকশন প্রাইভেট লিমিটেডের (এস সিপিএল) কাছ থেকে ২৪ কোটি ৬৮ লাখ ৫৮ হাজার ৮৫২ টাকায় ক্রয়ের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বৈঠকে অনুমোদিত অন্যান্য প্রস্তাবগুলো হলো:গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীন গণপূর্ত অধিদপ্তর কর্তৃক ‘জাতীয় রাজস্ব ভবন নির্মাণ’ প্রকল্পের প্যাকেজ নম্বর-১ এর নির্মাণের পূর্ত কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে তাহের ব্রাদার লিমিটেড এবং হোসাইন কন্সট্রাকশন প্রাইভেট লিমিটেডের ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৫ কোটি ১২ লাখ ৮৬ হাজার ৬৮০ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ‘ভোলা জেলার চরফ্যাশন উপজেলাধীন তেঁতুলিয়া নদীর ভাঙন হতে বকশী লঞ্চঘাট হতে বাবুরহাট লঞ্চঘাট পর্যন্ত প্রতিরক্ষা ও ড্রেজিং এবং কুকরী-মুকরী দ্বীপ বন্যা নিয়ন্ত্রণ’ প্রকল্পের প্যাকেজ নম্বর-১ এর পূর্ত কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান যৌথভাবে এম এম বিল্ডার্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারস লিমিটেড, মো. লিয়াকত আলী ও তাজওয়ার ট্রেড সিস্টেমস লিমিটেডের ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৫ কোটি ৯৫ লাখ ৫৪ হাজার ৭৩৬ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক ‘ভারতের সাথে রেল সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে চিলাহাটি এবং চিলাহাটি বর্ডারের মধ্যে ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ’ প্রকল্পের প্যাকেজ নম্বর- ডাব্লিউডি-১ এর পূর্ত কাজে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার লিমিটেডের ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৩৩ কোটি ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৮৮৫ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক ‘খুলনা হতে মোংলা পোর্ট পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ’ প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিয়োজিত স্টাপ কনসালটেন্ট প্রাইভেট লিমিটেডের চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধিজনিত কারণে ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ২৯ কোটি ১ লাখ ১৩ হাজার ৭৭ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক ‘আখাউড়া থেকে লাকসাম পর্যন্ত ডুয়েলগেজ ডাবল রেললাইন নির্মাণ এবং বিদ্যমান রেললাইনকে ডুয়েলগেজে রূপান্তর’ প্রকল্পে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিয়োজিত কোরিয়ার দোহা ইঞ্জিনিয়ারিং করপোরেশন লিমিটেডের কাছ থেকে চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধিজনিত কারণে ভেরিয়েশন বাবদ অতিরিক্ত ৫৩ কোটি ৬ লাখ ৩২ হাজার ২১৮ টাকা ব্যয় বৃদ্ধির ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

স্ব.বা/ রু

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *