স্ত্রী হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি তানোর থানা পুলিশ কর্তৃক গ্রেফতার

রাজশাহী

স্টাফ রিপোর্টার: আজ ৩০-৪-২০২২ তারিখ দিবাগত রাত অনুমান ০৩.০০ টার দিকে তানোর থানা পুলিশের একটি টিম দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে আত্মগোপনে থাকা স্ত্রী হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোঃ নজরুল ইসলাম(৫৫), পিতা-মৃত ভন্ডু মন্ডল, সাং-ছাঐড়, থানা-তানোর, জেলা-রাজশাহীকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সুন্দরপুর ইউনিয়নের প্রত্যন্ত অঞ্চল হতে গ্রেফতার করেছে। উল্লেখ্য, ১৫/৪/১৯৯৫ সালে সন্ধ্যা অনুমান ৭.০০ টার দিকে আসামি নজরুল ইসলাম তার স্ত্রী বেংগী বিবির নিকট রাতের খাবার চাইলে তার স্ত্রী খাবার দিতে দেরি করায় রাগান্বিত হয়ে স্ত্রীকে মাটিতে ফেলে দিয়ে পেটে ও বুকে উপর্যুপরি সজোরে লাথি মেরে গুরুতর জখম করে। উক্ত আঘাতের কারনেই ২৬/৪/১৯৯৫ সালে তার স্ত্রী মারা যান। নিজ স্ত্রীকে হত্যার দায়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ২৭-৫-১৯৯৫ সালে তানোর থানায় দন্ডবিধির ৩০২ ধারায় হত্যা মামলা রুজু হয়। মামলাটি তদন্ত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। উক্ত অভিযোগপত্রের প্রেক্ষিতে রাজশাহীর বিজ্ঞ দায়রা জজ আদালতে সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে উক্ত আসামি মোঃ নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ৩০২ ধারার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তার যাবজ্জীবন কারাদন্ডসহ ৫,০০০/- টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাসের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ হয়।

উক্ত আসামি মামলার হওয়ার পরপরই এলাকা হতে পালিয়ে যায়। উক্ত আসামির বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালত কর্তৃক সাজা ওয়ারেন্ট ইস্যু হয়। উক্ত আসামি তানোর থানা হতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় পালিয়ে গিয়ে মোঃ আজিজ, পিতা-মশির মন্ডল, সাং-সুন্দরপুর, থানা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, জেলা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ নামীয় ছদ্ম নাম ও ঠিকানা ব্যবহার করে জাতীয় পরিচয়পত্রের স্মার্ট কার্ড তৈরি করে করে এবং দ্বিতীয় বিবাহ করে সেখানে বসবাস করতে থাকে। আসামি বর্তমানে ঢাকায় লেবারের কাজ করতো। মাঝে মধ্যেই চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাড়িতে আসে।

রাজশাহীর সম্মানিত পুলিশ সুপার জনাব এ বি এম মাসুদ হোসেন, বিপিএম (বার) এর দিক-নির্দেশনায় তানোর থানা পুলিশ মূলতবী ওয়ারেন্টসমূহ তামিলের বিষয়ে গুরুত্বসহকারে কার্যক্রম শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গোপন তথ্যের ভিত্তিতে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামান মিয়ার নেতৃত্বে তানোর থানা পুলিশের একটি চৌকশ টিম আজ ৩০-৪-২০২২ ইং তারিখ দীর্ঘ ২৭ বছর ধরে আত্মগোপনে থাকা উক্ত আসামিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারকৃত আসামিকে আজই বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

স্ব.বা/বা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *