ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী, সন্তোষে ভক্তদের ঢল

বিশেষ সংবাদ

স্বদেশবাণী ডেস্ক: মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে ভোর হতেই টাঙ্গাইলের সন্তোষে ভাসানীর মাজারে ভক্ত ও মুরিদানদের ঢল নেমেছে।

১৯৭৬ সালের ১৭ নভেম্বর ঢাকার পিজি হাসপাতালে (বর্তমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত হন।

বুধবার সকালে প্রথম ভাসানীর মাজারে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং মোনাজাতের মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ডক্টর এ আর এম সোলাইমান।

 

এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থী, মাওলানা ভাসানীর পরিবার, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাব, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন, ভাসানী ভক্ত ও মুরিদানরা মাজারে পুস্পস্তবক অর্পণ ও মোনাজাত করেন।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠন দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করছে।

এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মিলাদ, দোয়া মাহফিল, ওরশ, দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণ, কাঙালি ভোজ, মওলানা ভাসানীর কর্মময় জীবনের উপর আলোচনা সভা ও বাউল গানসহ নানা কর্মসূচি।

১৮৮০ সালের ১২ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জের ধানগড়া গ্রামে মওলানা ভাসানীর জন্ম। সিরাজগঞ্জে জন্ম হলেও তিনি জীবনের সিংহভাগই কাটিয়েছেন টাঙ্গাইলের সন্তোষে। কৈশোর-যৌবন থেকেই রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন ভাসানী।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি প্রবাসী সরকারের উপদেষ্টা ছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *