আদালতে নেয়া হচ্ছে গোল্ডেন মনিরকে

সারাদেশ

স্বদেশ বাণী ডেস্ক: দোকানের কর্মচারী থেকে হাজার কোটি টাকার মালিক বনে যাওয়া মনির হোসেন ওরফে গোল্ডেন মনিরকে বাড্ডা থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৩। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এসব মামলায় রোববার (২২ নভেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

এর আগে শনিবার (২১ নভেম্বর) রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় তার বাসায় অভিযান চালিয়ে স্বর্ণ, মাদক ও কোটি টাকা উদ্ধার করে র‌্যাব। সেখানেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে বাড্ডা থানায় মনিরকে হস্তান্তর করে র‌্যাব-৩। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় তিনটি মামলা দায়ের হয়েছে বলে র‌্যাবের সূত্রে জানা গেছে।

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ সাংবাদিকদের বলেন, ‘অস্ত্র, মাদক ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে মনিরের বিরুদ্ধে পৃথক তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাসে তার কাছ থেকে অনেক তথ্য জানা গেছে। আরও তথ্য উদ্ঘাটনে তার রিমান্ড চাওয়া হবে।’

এর আগে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে গোল্ডেন মনিরের বাসা, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানসহ বেশ কয়েকটি জায়গায় অভিযান চালানো শুরু করে র‌্যাব।  শনিবার দুপুর পর্যন্ত টানা ৮ ঘণ্টার অভিযান শেষে ওিই বাসা থেকে ৬শ’ ভরি সোনার গহনা, বিদেশি পিস্তল-গুলি, মদ, ১০ দেশের বিপুল বৈদেশিক মুদ্রা ও নগদ এক কোটি ৯ লাখ টাকা জব্দ করা হয়।

র‌্যাব জানায়, ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় দুই শতাধিক প্লট ও ফ্ল্যাটের মালিক গোল্ডেন মনির। রাজউকের কয়েকজন কর্মকর্তার যোগসাজশে জালিয়াতির মাধ্যমে অসংখ্য প্লট হাতিয়ে নেন তিনি। তবে প্রাথমিকভাবে ৩০টি প্লট ও ফ্ল্যাটের কথা স্বীকার করেছেন মনির।  জব্দ করা হয়েছে ২টি বিলাসবহুল গাড়ি। যার প্রতিটির মূল‌্য ৩ কোটি টাকা।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *