সংঘর্ষের ৩ বছর পর মামলা, আসামি মেয়র আইভীর ভাইসহ ১৭

সারাদেশ

স্বদেশবাণী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ শহরে হকার উচ্ছেদ নিয়ে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী ও সংসদ সদস্য শামীম ওসমান সমর্থকদের মধ্যে আলোচিত সংঘর্ষের ঘটনার ২ বছর ১১ মাস পর মামলা হয়েছে। যেখানে আসামি করা হয়েছে মেয়র আইভীর ভাই  ও চার কাউন্সিলরসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে। মামলাটি করেছেন নিয়াজুল ইসলাম নামে আরেক অস্ত্রধারী।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুনের আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সদর মডেল থানার ওসিকে তদন্তের নির্দেশ দেন।

২০১৮ সালের ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে ফুটপাতে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে মেয়র আইভী ও শামীম সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষের সময় অস্ত্র হাতে দেখা যায় যুবলীগ নেতা নিয়াজুল ইসলামকে।

সেই নিয়াজুল ইসলাম নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৪ কাউন্সিলরসহ মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর ১৭ সমর্থকের বিরুদ্ধে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ তুলে রোববার মামলার আবেদন করেন আদালতে। আদালত সোমবার মামলাটি আমলে নিয়ে ২০২১ সালের ২২ মার্চের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসিকে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন।

অভিযুক্তরা হলেন, মেয়র আইভীর সমর্থক জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সুফিয়ান, মেয়র আইভীর ছোট ভাই ও শহর যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী রেজা উজ্জল, আমিরুল ইসলাম, মাসুম, আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, হাজী নেওয়াজ, সরকার আলম, সৈকত মেম্বার, মোতালেব, ফারুক, অপু, মেয়র আইভীর ভাগিনা মিনাজুল কাদির মিমনসহ ১৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও যুবদল নেতা মাকসুদুল আলম খোরশেদ, ১৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কবির হোসেন ও ২৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হান্নান সরকার।

নারায়ণগঞ্জের আদালত পুলিশের পরির্দশক আসাদুজামান  জানান, ‘শহরে হকার ইস্যুকে কেন্দ্র করে নিয়াজুল ইসলাম ১৭ জনের নামে মামলা দায়ের করেছেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সদর থানার ওসিকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।’

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *