ওভারটেক করতে গিয়ে বাস খাদে পড়ে হতাহত ১৩

সারাদেশ

স্বদেশবাণী ডেস্ক: চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন বাসের আরও ১২ যাত্রী। মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার কেরানীহাটের উত্তরে খুনি বটতল নামক এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. নাছির (২৮)। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়ায়। সে ওই বাসের সুপারভাইজার ছিল বলে জানা গেছে।

দুর্ঘটনাকবলিত বাসটির যাত্রী সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক তারেকুল ইসলাম বলেন, “আমাদের বাসটি দ্রুতগতিতে আরেকটি বাসকে অতিক্রম করার সময় খাদে পড়ে যায়।”

দোহাজারী হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত জানান- শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের সুপারভাইজার নাছির নিহত হন। এ সময় আহত হন আরও ১২ যাত্রী।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি সৈয়দ আক্কাস উদদীন অভিযোগ করে বলেন- এই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী পরিবহনগুলোর মালিকগণ। কারণ, প্রশিক্ষণ ছাড়া চালক স্বাভাবিকভাবেই বেপরোয়া আর উশৃংখল প্রকৃতির হবেই। আর তাদের প্রশিক্ষণ ছাড়া রাস্তায় নামলেই বিপদ অনিবার্য।

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন বাসের আরও ১২ যাত্রী। মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার কেরানীহাটের উত্তরে খুনি বটতল নামক এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. নাছির (২৮)। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়ায়। সে ওই বাসের সুপারভাইজার ছিল বলে জানা গেছে।

দুর্ঘটনাকবলিত বাসটির যাত্রী সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক তারেকুল ইসলাম বলেন, “আমাদের বাসটি দ্রুতগতিতে আরেকটি বাসকে অতিক্রম করার সময় খাদে পড়ে যায়।”

দোহাজারী হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত জানান- শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের সুপারভাইজার নাছির নিহত হন। এ সময় আহত হন আরও ১২ যাত্রী।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি সৈয়দ আক্কাস উদদীন অভিযোগ করে বলেন- এই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী পরিবহনগুলোর মালিকগণ। কারণ, প্রশিক্ষণ ছাড়া চালক স্বাভাবিকভাবেই বেপরোয়া আর উশৃংখল প্রকৃতির হবেই। আর তাদের প্রশিক্ষণ ছাড়া রাস্তায় নামলেই বিপদ অনিবার্য।

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ওভারটেক করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে পড়ে এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন বাসের আরও ১২ যাত্রী। মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) বেলা পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার কেরানীহাটের উত্তরে খুনি বটতল নামক এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম মো. নাছির (২৮)। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়ায়। সে ওই বাসের সুপারভাইজার ছিল বলে জানা গেছে।

দুর্ঘটনাকবলিত বাসটির যাত্রী সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক তারেকুল ইসলাম বলেন, “আমাদের বাসটি দ্রুতগতিতে আরেকটি বাসকে অতিক্রম করার সময় খাদে পড়ে যায়।”

দোহাজারী হাইওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াসির আরাফাত জানান- শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের সুপারভাইজার নাছির নিহত হন। এ সময় আহত হন আরও ১২ যাত্রী।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে সাতকানিয়া সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি সৈয়দ আক্কাস উদদীন অভিযোগ করে বলেন- এই দুর্ঘটনার জন্য দায়ী পরিবহনগুলোর মালিকগণ। কারণ, প্রশিক্ষণ ছাড়া চালক স্বাভাবিকভাবেই বেপরোয়া আর উশৃংখল প্রকৃতির হবেই। আর তাদের প্রশিক্ষণ ছাড়া রাস্তায় নামলেই বিপদ অনিবার্য।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *