মতলব উত্তরে সাত স্থানে ১৪৪ ধারা

সারাদেশ

স্বদেশবাণী ডেস্ক: চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সমর্থকরা পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ডাকায় মতলব উত্তরের সাতটি স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে আগামী শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত এ ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকবে।

স্থানগুলো হলো- শ্রীরায়ের চর, মোহনপুর, ফতেপুর, এখলাছপুর, দশানী, আমিরাবাদ ও মতলব সেতুর উত্তর পার এলাকা।

বুধবার রাতে মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা-ইউএনও স্নেহাশীষ দাশ জানান,  দলীয় ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ব্যানারে এসব স্থানে সমাবেশ ডাকেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সমর্থকরা।

এতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় এই সাত এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, একই সময়ে একই স্থানে দুজন রাজনৈতিক নেতার পক্ষে সভা আহ্বান করা হয়। এতে বিশৃঙ্খলা ও সহিংসতার আশঙ্কা দেখা দেয়। এ অবস্থায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মতলব উত্তরের সাতটি স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সমর্থকরা পাল্টাপাল্টি সমাবেশ ডাকায় মতলব উত্তরের সাতটি স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন।

স্থানগুলো হলো- শ্রীরায়ের চর, মোহনপুর, ফতেপুর, এখলাছপুর, দশানী, আমিরাবাদ ও মতলব সেতুর উত্তর পার এলাকা।

বুধবার রাতে মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা-ইউএনও স্নেহাশীষ দাশ জানান,  দলীয় ও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের ব্যানারে এসব স্থানে সমাবেশ ডাকেন চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুরুল আমিন রুহুল ও সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সমর্থকরা।

এতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় এই সাত এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, একই সময়ে একই স্থানে দুজন রাজনৈতিক নেতার পক্ষে সভা আহ্বান করা হয়। এতে বিশৃঙ্খলা ও সহিংসতার আশঙ্কা দেখা দেয়। এ অবস্থায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মতলব উত্তরের সাতটি স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *