চার নভোচারী পৌঁছেছেন আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে

তথ্যপ্রযুক্তি

স্বদেশবাণী ডেস্ক: স্পেসএক্স’র একটি ক্যাপসুল ৪ নভোচারীকে নিয়ে বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ভিড়েছে। পৃথিবীর বাইরে কক্ষপথে স্থাপিত এই মহাকাশ স্টেশনে নভোচারীরা একটানা ৬ মাস অবস্থান করবেন।

যুক্তরাষ্ট্র ২০১১ স্পেসশাটল প্রোগ্রাম বন্ধ করার পরে হিউম্যান স্পেসফ্লাইট জোরদার এবং মহাকাশ স্টেশনে (আইএসএস) রাশিয়ার নির্ভরতা কমাতে ইলন মাস্কেও স্পেস কোম্পানির সঙ্গে অংশীদারিত্বে স্পেসফ্লাইট উন্নয়নে কয়েক বিলিয়ন ডলারের চুক্তি স্বাক্ষর করে। এরই অংশ হিসেবে স্পেএক্স’র ফ্লাইট ক্রু-৩ ক্যাপসুল নভোচারীদের মহাকাশ স্টেশনে নিয়ে যায়।

স্পেস স্টেশনে মার্কিন অংশে মাত্র একজন নভোচারী দায়িত্বরত ছিলেন। তিনি নতুন আগত ৪ নভোচারীতে আইএসএস এ স্বাগত জানান। এর আগে রোববার ক্রু-২ মিশনে ৪ নভোচারী আইএসএস থেকে পৃথিবীতে ফিরে আসেন। তারা মেক্সিকো উপসাগরে অবতরণ করেন।

 

যুক্তরাষ্ট্রের রাজা চারি, কাইলা ব্যারন ও টম মার্সবুম এবং জার্মানির ম্যাথিয়াস মাউরার ফ্যালকন-৯ রকেটে ক্রু ড্রাগন ক্যাপসুল ক্রু-৩ এ ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে বুধবার দিনের শেষে মহাকাশ স্টেশনের উদ্দেশে যাত্রা করে।

মহাকাশ যানটি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টা ১০ মিনিটে (শুক্রবার ০০১০ জিএমটি) স্পেস স্টেশনে ভিড়ে। আবহাওয়ার এবং এক নভোচারীর সামান্য স্বাস্থ্যগত কারণে ফ্লাইটটির উৎক্ষেপণ ৩১ অক্টোবর থেকে বিলম্বিত হচ্ছিলো। নভোচারীদের মধ্যে কে অসুস্থ ছিলেন নাসা তা জানায়নি, তবে এটি কভিড-১৯ সংক্রান্ত নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর কর্ণেল চারি মিশনের কমান্ডিংয়ের দায়িত্বে আছেন। এটি মহাকাশে তার প্রথম যাত্রা। মার্সবুম একজন ডাক্তার। এর আগে তিনি ২০০৯ সালে স্পেসশাটলে মহাকাশে যান এবং ২০১২ থেকে ১৩ সালে রাশিয়ার স্পেসক্রাফট মিশনে ছিলেন। ব্যারন এবং চারিকে ২০১৭ সালে নাসার অ্যাস্ট্রোনাট করপ’স এ নির্বাচিত করা হয়। ব্যারন সম্প্রতি নেভির সাবমেরিন ওয়ারফেয়ারে অফিসার হিসাবে দায়িত্বে ছিলেন। মাউরার একজন ইঞ্জিনিয়ার, তিনি জার্মানির ১২ তম মহাকাশচারী।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *