তানোরের খাদ্য ইনস্পেক্টর মইনুলের বিরুদ্ধে বিতর্কিত কর্মকাণ্ডের অভিযোগ 

রাজশাহী
তানোর প্রতিনিধি: রাজশাহীর তানোরে খাদ্য ইনস্পেক্টর নানা বিতর্কিত মইনুল ফের বেপরোয়া হয়ে গুদাম সরদারকে একাধারে চাকরিচ্যুত করার হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এতে করে খাদ্য গুদামের সরদারসহ ব্যবসায়ীদের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। ফলে যে কোন মুহূর্তে ঘটতে পারে সংঘর্ষের মত ঘটনা বলেও আশঙ্কা করছেন অনেকেই।
জানা গেছে, মইনুল ইসলাম দীর্ঘ সময় সদর তানোরে খাদ্য গুদাম কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি দায়িত্বে থাকা অবস্থায় সিন্ডিকেটের মাধ্যমে নিজেই ব্যবসা করতেন। শুধু ব্যবসায় না ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে খারাপ আচরণ করতেন বলেও একাধিক অভিযোগ রয়েছে। গুদাম কর্মকর্তা থাকা অবস্থায় নানা অনিয়ম দুর্নীতির কারনে তাকে শাস্তি মুলুক হিসেবে কামারগাঁ খাদ্য গুদামে বদলি করা হয়। সেখানেও স্হানীয় ব্যবসায়ীদের সাথে হট্টগোল সহ নানান ঝামেলায় জড়িত হন মইনুল।
বর্তমানে তিনি  উপজেলা খাদ্য দপ্তরের ইনস্পেক্টর হিসেবে কর্মরত আছেন। বেশকিছু ব্যবসায়ীরা জানান,তিনি গুদাম কর্মকর্তা থাকা কালীন ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি করে সম্পদের পাহাড় গড়েছেন। যা সরেজমিনে তদন্ত করলেই বেরিয়ে পড়বে। এখন তিনি আর টাকা কামায় বা ব্যবসা করতে পারছেন না। মুলত এজন্যই লেবার সরদার এমরান আলী ভুট্টো কে চাকরিচ্যুত করতে মরিয়া হয়ে পড়েছেন। কারন অতীতের লেবার সরদার তাকে অনিয়ম দুর্নীতি করতে নানান ভাবে সহযোগিতা করেছিলেন। এখন তিনি ভুট্টোর কাছ থেকে অনিয়ম দুর্নীতির সুযোগ না পেয়ে আবল তাবল কথাবার্তা বলছেন। তিনি কামারগাঁ গুদাম কর্মকর্তা থাকা অবস্থায় ব্যবসায়ীদের হাতে এবং তানোরেও বেশকিছু ব্যবসায়ীদের হাতে মার খেয়েছেন। অন্য কোন কর্মকর্তা হলে এই এলাকায় চাকুরী করতেন না।
লেবার সরদার এমরান আলী ভুট্টো জানান, মইনুল স্যার মাঝেমধ্যে আমাকে নানাভাবে অনিয়ম করতে বলেন এবং তিনি অতীতে নিজেই ব্যবসা করে কাড়িকাড়ি টাকা কামিয়েছেন। সেই সুযোগ আমার কাছে না পেয়ে আমাকে চাকরিচ্যুত করতে উঠে পড়ে লেগেছেন।তিনি স্হানীয় সাংসদ ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
তবে মইনুল এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন আমার যে দায়িত্ব তা সঠিক ভাবে পালন করছি। এজন্যই অনেকের মাথা ব্যাথার কারন হয়ে পড়েছে।
স্ব.বা/বা
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *