মিথ্যা ধরার নতুন যন্ত্র

তথ্যপ্রযুক্তি

সন্দেহভাজন কেউ সত্য কথা বলছে নাকি মিথ্যা কথা বলছে, তা নির্ণয়ে বেশ পরিচিত পলিগ্রাফ টেস্ট অর্থাৎ লাই ডিটেক্টর টেস্ট। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী লাই ডিটেক্টর ডিভাইসের সাহায্যে কারো মিথ্যা কথা বলাটা শনাক্তকরণ করে থাকে।

বিজ্ঞানীরা এবার নতুন এমন একটি ডিভাইস তৈরি করেছেন, যা লেখার ওপর ভিত্তি করে মিথ্যা শনাক্ত করতে পারে। অর্থাৎ ঘটনা সম্পর্কে মিথ্যা লিখেছে কিনা, তা বুঝতে পারে ডিভাইসটি। এটি তৈরি করেছেন কার্ডিফ ইউনিভার্সিটির গবেষকেরা, যা লিখিত মিথ্যা বিবরণ শনাক্তে ৮০ শতাংশ নির্ভুল।

‘ভেরিপল’ নামক এই ডিভাইসটি পুলিশের কাছে দেওয়া লিখিত ভুয়া বিবৃতি ধরার জন্য তৈরি করা হয়েছে এবং স্পেনের বিভিন্ন থানায় ইতিমধ্যে এটির ব্যবহার শুরু হয়েছে।

গবেষকরা স্পেনের পুলিশের কাছ থেকে নেওয়া ১ হাজারের বেশি রিপোর্ট ডিভাইসটিতে পরীক্ষা করেছেন। ফলাফল দেখা গেছে, এটি ৮০ শতাংশ সফলতার সঙ্গে সত্য এবং মিথ্যা লিখিত বিবৃতি নির্ণয়ে সক্ষম।

গবেষণার সহ-লেখক ড. জোসে কামাচো-কোলাডোস বলেন, ‘গবেষণায় আমরা দেখেছি যে, অপরাধীরা কীভাবে পুলিশকে মিথ্যা বলে এবং মিথ্য বিবৃতি লিখতে তাদের বাধা দেওয়ার জন্য এ ধরনের ডিভাইস তৈরিতে আমরা গুরুত্ব দিয়েছি।’

তথ্যসূত্র : মিরর

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.